আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ পতিদার সম্প্রদায়ের সংরক্ষণের দাবিতে আমরণ অনশনে বসেছিলেন হার্দিক প্যাটেল। বুধবার সেই অনশন ভাঙার ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই পতিদার আন্দোলনের নেতা। কোদালধাম এবং উমিয়াধামের দুই পতিদার নেতার অনুরোধেই তিনি অনশন ভাঙার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে খবর। হার্দিক ঘনিষ্ঠ তথা পতিদার আনামত আন্দোলন সমিতির আহ্বায়ক মনোজ পানারা সাংবাদিক বৈঠক করে হার্দিকের অনশন ভাঙার খবর দেন। রাষ্ট্রশক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্যই এই অনশন ভাঙার অনুরোধ করা হয়েছিল হার্দিককে। যা মেনে নিয়েছেন তিনি এবং আজই অনশন ভাঙার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। 
কিন্তু কেন অনশন ভাঙার সিদ্ধান্ত নিলেন হার্দিক?‌ এই বিষয়ে সাংবাদিক বৈঠকে মনোজ পানারা বলেন, ‘‌হার্দিক অনশন চালিয়ে যাওয়ার জন্য দৃঢ়প্রতিজ্ঞ ছিলেন। কিন্তু আমরা অনুরোধ করেছি এই অনশন প্রত্যাহার করার জন্য। কারণ সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই করতে হবে। তিনি আমাদের অনুরোধ মেনে নিয়েছেন এবং আজই অনশন ভাঙবেন।’‌ মূলত দুটি দাবিতে হার্দিক প্যাটেল অনশনে বসেছিলেন। এক, পতিদার সম্প্রদায়ের জন্য সংরক্ষণ করতে হবে। দুই, কৃষকদের ঋণ মুকুব করতে হবে। এই দুই দাবিতে ২৫ আগস্ট থেকে অনশনে বসেছিলেন হার্দিক। তার মধ্যেই শ্বাসকষ্টের জন্য তাঁকে ৭ সেপ্টেম্বর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যেতে হয়। এই অনশন চলাকালীন তাঁর সঙ্গে দেখা করতে আসেন প্রকাশ আম্বেদকর, শত্রুঘ্ন সিনহা, যশবন্ত সিনহা, হরিশ রাওয়াত, জিগনেশ মেভানি সহ–আরও অনেকে।  ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top