আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ফের প্রকাশ্যে দিল্লির বিজেপি নেতৃত্বের সংঘাত। উত্তরপূর্ব দিল্লির অশান্তির জন্য দলীয় নেতা কপিল মিশ্রকে অভিযুক্ত করে তাঁর কঠোর শাস্তির পক্ষে মঙ্গলবার সওয়াল করলেন বিজেপি সাংসদ গৌতম গম্ভীর। ‘‌প্ররোচনা যদি বিজেপির কেউ দিয়ে থাকেন তাঁর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করা হোক’‌, বললেন তিনি।
গম্ভীর বলেছেন, ‘‌প্ররোচনা যেদিক থেকেই আসুক, কপিল মিশ্র বা যেই হোন, তিনি যেই দলেরই হোন, তাঁর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হোক। এটা আর রাজনৈতিক দলের সমস্যার মধ্যে আটকে নেই। পুরো দিল্লিবাসীর সমস্যা এখন এটা। হিংসার মাধ্যমে কোনও সমাধান হয় না।’
বাংলার পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘এইরকম পরিস্থিতি তৈরি হবে জেনেই ট্রাম্পের ভারত সফর শুরু হয়েছিল আমেদাবাদ থেকে। তা না হলে এত বড় দেশের প্রেসিডেন্ট প্রথম পা রাখলেন আমেদাবাদে?‌ ভারতের রাজধানীতে নয় কেন?‌ আর সরকারের লোকেরা দু’‌তিনদিন আগে থেকেই হুমকি দেওয়া শুরু করেছিল। অত্যন্ত নিন্দনীয় এই ঘটনা।’ এআইএমআইএম সুপ্রিমো তথা হায়দরাবাদের সাংসদ আসাদুদ্দিন ওয়াইসি বললেন, ‘‌এটি কোনও ধর্মীয় গণ্ডগোল নয়। এটার পিছনে একমাত্র কাজ করছে বিজেপি।’
সিএএ গন্ডগোলে মঙ্গলবারও অগ্নিগর্ভ দিল্লি। জাফরাবাদ, গোকুলপুরী, মৌজপুর, কবীরনগর, ভজনপুরা চক, ইত্যাদি একাধিক এলাকায় তিনদিন ধরে আকাশ ঢেকেছে কালো ধোঁয়ায়। ভাঙা হয়েছে একাধিক বাড়ির কাঁচ। আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়েছে গাড়ি, বাড়ি, পেট্রল পাম্পেও। মৃতের সংখ্যা বেড়ে সাত।‌ জখম ১০০ জনের মধ্যে অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক থাকায় মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।‌

জনপ্রিয়

Back To Top