আবু হায়াত বিশ্বাস, দিল্লি: লকডাউনে সক্রিয় টিকিট জালিয়াতি চক্র! দেশের ভিন্ন ভিন্ন প্রান্ত থেকে বাড়ি ফেরার জন্য বিশেষ ট্রেনের টিকিট কাটতে গিয়ে প্রতারকদের পাল্লায় পড়ছেন অনেকে। টিকিট মূল্যের দ্বিগুণ গুনতে হচ্ছে। তা–‌ও আবার জাল টিকিট! এই অভিযোগ পেয়েই নড়েচড়ে বসে রেল। বিশেষ ট্রেনের টিকিট বেআইনিভাবে বিক্রির অভিযোগে আইআরসিটিসি–‌র ৮ এজেন্ট–‌সহ ১৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে রেলওয়ে প্রোটেকশন ফোর্স (আরপিএফ)। তাদের থেকে ৬ লক্ষ ৩৬ হাজার টাকা মূল্যের টিকিট উদ্ধার করা হয়েছে। রেল সূত্রে খবর, আগামী দিনে এই টিকিট প্রতারণা চক্রের বিরুদ্ধে লাগাতার অভিযান চালানো হবে। টিকিট জালিয়াতি চক্র থেকে দূরে থাকতে যাত্রীদের সচেতন করতে আসরে নেমেছে রেল।
রেল টিকিট নিয়ে জালিয়াতির অভিযোগে নতুন কিছু নয়। মাঝেমধ্যেই টিকিট জালিয়াতি রুখতে আরপিএফ অভিযান চালায়। তবে, লকডাউনের সময় টিকিটের কালোবাজারি বন্ধে আরও বেশি সক্রিয় ‌হয়েছে তারা। বিশেষ ট্রেনগুলির টিকিটের চাহিদা এতটাই যে অনলাইন বুকিং শুরুর মুহূর্তের মধ্যেই শেষ হয়ে যাচ্ছে টিকিট। রেল মন্ত্রক সূত্রের খবর, এখন শ্রমিক স্পেশ্যাল ট্রেন ছাড়াও বিশেষ এসি ট্রেন চলছে। এছাড়াও ১ জুন থেকে ২০০টি নন–‌এসি ট্রেন চালাবে রেল। গতকাল থেকে আইআরসিটিসি–‌র ওয়েবসাইট থেকে টিকিট বুকিং শুরু হয়েছে। প্রথম দিনেই বিপুল সাড়া মিলেছে। গতকাল পর্যন্ত ১৩ লক্ষের বেশি টিকিট বুকিং হয়েছে। রেল জানিয়েছে, আইআরসিটিসি–‌র ওয়েবসাইট ছাড়াও রেল স্টেশনের টিকিট কাউন্টার, পোস্ট অফিস, যাত্রী সুবিধা কেন্দ্র, কমন সার্ভিস সেন্টার এবং আইআরসিটিসি–র এজেন্টদের থেকেও টিকিট কাটা যাবে। 
আইআরসিটিসি–‌র ৮ এজেন্ট–‌সহ ১৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে রাজধানী এক্সপ্রেসের রুটে চলা বিশেষ ট্রেনের টিকিট বেআইনিভাবে বিক্রির অভিযোগে। ওই  এজেন্টদের ব্ল্যাক লিস্ট করতে চলেছে রেল। দিন কয়েক আগে রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল টিকিট জালিয়াতি চক্রের থেকে যাত্রীদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছিলেন। রেলের ই–‌টিকিট প্রতারক এজেন্টদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করার  জন্য যাত্রীদের কাছে আবেদন জানান তিনি। ‌

জনপ্রিয়

Back To Top