আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ একবছরে গড়ে পনেরো হাজার কৃষক দেশে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। মোদি জমানায় এই কৃষক আত্মহত্যা ছিল অন্যতম ইস্যু। কিন্তু লোকসভার ময়দানে সেই বিষয় মোটে পাত্তা পায়নি। বরং অনেক বেশি আসন নিয়ে ক্ষমতায় ফিরেছেন নরেন্দ্র মোদি। তবে অবস্থা পাল্টায়নি কৃষকদের। সরকার গঠনের ঠিক পরেই ফের খবর পাওয়া যাচ্ছে আত্মহত্যার। এবার খবরের উৎস মধ্যপ্রদেশের রেওয়া জেলা। 
অশোক প্রজাপতি নামে এক কৃষক গতকাল তাঁর তিন সন্তান ও স্ত্রীকে নিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। সকলের খাবারে বিষ মিশিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। এরপরই সকলকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যান স্থানীয়রা। সেখানে মৃত্যু হয় অশোক, তাঁর স্ত্রী ও তাঁর এক সন্তানের। বাকি দুই সন্তান এখনও মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে। 
অশোকের বাবা জানিয়েছেন, গত মরশুমে ফসল ভাল হয়নি। সেই কারণে ইঁট তৈরির কাজ করবেন বলে অশোক ধার নিয়েছিলেন প্রায় ১ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা। সেই টাকা সময়মতো শোধ করতে পারেননি। ফলে ক্রমাগত চাপ আসছিল তাঁর উপর। হুমকিও নাকি দেওয়া হয়েছিল। আর সহ্য করতে পারেননি ওই কৃষক। শেষ পর্যন্ত বিষ খেয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন। 
মধ্যপ্রদেশে আগে বিজেপির সরকার থাকলেও কয়েকমাস আগে সেই সরকারের বদল হয়। মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নেন কমল নাথ। কংগ্রেসের সরকার আসার পরেই ঋণমকুবের কথা ঘোষণা করে। কিন্তু তাতেও সমাধান হয়নি।   

জনপ্রিয়

Back To Top