আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ যেভাবে সংসদে জোড়া কৃষি বিল পাশ করিয়েছে সরকার, তা ‘‌গণতন্ত্রের হত্যা’‌র সামিল। ওই বিলে সই করবেন না। রাষ্ট্রপতিকে এই অনুরোধ জানিয়ে চিঠি লিখল ১৮টি বিরোধী দল। 
রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের উদ্দেশে লেখা চিঠিতে বলা হল, ‘‌আমরা ভারতের বিভিন্ন প্রান্তের রাজনৈতিক দলের সদস্য, ভৌগোলিক এবং রাজনৈতিক বিভিন্নতা সরিয়ে রেখে আপনার দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চাইছি, যে গণতন্ত্রের পবিত্র মন্দিরেই গণতন্ত্রের হত্যা হয়েছে। ‌আমাদের আপনার কাছে প্রার্থনা, এই বিলে সই করবেন না। আমাদের প্রার্থনা, সাংবিধানিক এবং নীতিগত, সমস্ত ক্ষমতা দিয়ে এই কালো আইনকে আইন হতে দেবেন না।’‌
তিনটি কৃষি সংস্কার সংসক্রান্ত বিলের মধ্যে দু’‌টি রবিবার রাজ্যসভায় পাশ হয়ে গেছে। ‘কৃষিপণ্য লেনদেন ও বাণিজ্য উন্নয়ন’ এবং ‘কৃষিপণ্যের দাম নিশ্চিত করতে কৃষকদের সুরক্ষা ও ক্ষমতায়ন চুক্তি’ বিল। বিল দু’‌টি লোকসভায় আগেই পাশ হয়েছে। এবার রাষ্ট্রপতি বিলে সই করলে তা আইনে পরিণত হবে। 
বিক্ষুব্ধ কৃষক ও বিরোধী দলগুলির অভিযোগ, এই বিলগুলিতে কৃষকদের স্বার্থ উপেক্ষা করে বড় ব্যবসায়ী এবং কর্পোরেট সংস্থাগুলিকে একতরফা ভাবে ফসলের দাম নির্ধারণ এবং মজুতদারির অধিকার দেওয়া হয়েছে। রবিবার রাজ্যসভায় বিল পাশের সময় ওয়েলে নেমে বিক্ষোভ দেখান তৃণমূল সাসংদ ডেরেক ও ব্রায়েন সহ বিরোধী সাংসদরা। রুল বুক ছিঁড়তে যান ডেরেক। সোমবার ডেরেক সহ আট সাংসদকে সাসপেন্ড করা হয় রাজ্যসভা থেকে। তাঁরা কক্ষ থেকে বেরোতে অস্বীকার করেন। এর পর সংসদের বাইরে বাগানে ধরনা দেন।
এবার কংগ্রেস, তৃণমূল, সপা, রাজদ, এনসিপি, ডিএমকে, বাম সহ ১৮টি বিরোধী দলের সাংসদরা রাষ্ট্রপতিকে চিঠি লিখলেন। চিঠিতে সরকারকে ‘‌অনুভূতিহীন, উদাসীন’‌ বলা হয়েছে। এও বলা হয়, যে ‘‌সরকার আসলে জেদ এবং দম্ভের রাজনীতি করছে।’‌
 

জনপ্রিয়

Back To Top