আজকাল ওয়েবডেস্ক: করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ভয়াবহতার পিছনে এই ‘ডেল্টা’ স্ট্রেনকে দায়ী করা হচ্ছে। বি.১.৬১৭.২ প্রজাতির নাম দেওয়া হয়েছে ‘ডেল্টা’। ভারতের স্ট্রেনের নামের বিভ্রান্তি এড়াতে ‘ডাবল মিউট্যান্ট’-এর নামকরণ পরিবর্তন করা হয়। অন্যদিকে, ব্রিটেনের প্রজাতির নাম ‘আলফা’, দক্ষিণ আফ্রিকার প্রজাতির নাম ‘বিটা’ এবং ব্রাজিলের প্রজাতির নাম দেওয়া হয় ‘গামা’। 

আর এই ডেল্টা স্ট্রেনের খোঁজ মিলেছে মোট ৬০টি দেশে। আর এই স্ট্রেনের বেশকিছু নতুন উপসর্গ দেখা যাচ্ছে। এমনকী করোনা-পরবর্তী সময়ে হতে পারে আরও কয়েকটি সমস্যা।

১) পেটের সমস্যা: এই স্ট্রেনের দ্বারা আক্রান্ত হলে ডায়রিয়া, পেট-ব্যথা, বমি, বদহজমের মতো বেশ কিছু সমস্যা হতে পারে। এর রেশ অনেকদিন থাকতে পারে বলে জানাচ্ছেন চিকিৎসকরা।

২) শ্রবণ শক্তি হ্রাস: এই স্ট্রেনের দ্বারা আক্রান্ত হলে অনেকেরই শ্রবণ শক্তি কমে যেতে পারে।

৩) ফুসফুসের মারাত্মক ক্ষতি: করোনা চলাকালীন যদি দেখা যায় যে রক্তে অক্সিজেনের পরিমাণ অনেকাংশে কমে যাচ্ছে, তাহলে ধরে নিতে হবে ডেল্টা প্রজাতির সংক্রমণ এটি। এর পাশাপাশি করোনা থেকে সেরে ওঠার পরও ফুসফুসের বিভিন্ন রকম ক্ষতি এবং হৃদরোগের সমস্যা হতে পারে।

৪) ত্বকের সমস্যা: ত্বকে ফুসকুড়ি, ইনফেকশন, চুলপড়ার সমস্যা এই ধরনের স্ট্রেনের ফলে হতে পারে।

৫) রক্ত জমাট বাঁধা: এই স্ট্রেনের সবথেকে খারাপ দিকগুলি হল কেউ কোভিড আক্রান্ত হলে শরীরে রক্ত জমাট বাঁধার সমস্যা হতে পারে। যার ফলে টিস্যুতে সংক্রমণ ছড়িয়ে গ্যাংরিনও হতে পারে।

জনপ্রিয়

Back To Top