আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ আগামী তিন মাস বিমানের টিকিটের দাম নির্ধারণ করবে কেন্দ্রীয় সরকার। টিকিট যাতে সাধারণ মানুষের সাধ্যের মধ্যেই থাকে, সেই চেষ্টাই করা হবে। পাশাপাশি এটাও দেখা হবে যাতে, বিমান সংস্থাগুলি ক্ষতির সম্মুখীন না হয়। লকডাউনের জেরে দু’মাস ধরে বন্ধ সাধারণ যাত্রীবাহী উড়ান। সোমবার থেকে ফের চালু হচ্ছে ঘরোয়া উড়ান। বৃহস্পতিবার অন্তর্দেশীয় বিমান চলাচলে অনুমতি দিয়েছে কেন্দ্র। তারপরই অসামরিক় বিমান পরিবহণ মন্ত্রী হরদীপ সিংহ পুরী জানিয়েছেন,  ‘দিল্লি-মুম্বই রুটে বিমানের টিকিটের দাম ৩,৫০০ টাকা থেকে ১০,০০০ টাকার মধ্যে থাকবে। এছাড়া একটি বিমানের ৪০ শতাংশ আসনের টিকিটের দাম কম রাখতে হবে। উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, একটি বিমানে যদি ১৮০টি আসন থাকে, তাহলে সব টিকিটের দামই ৩,৫০০ টাকা থেকে ১০,০০০ টাকার মধ্যে থাকবে। একইসঙ্গে ৭২টি আসনের টিকিটের দাম রাখতে হবে ৩,৫০০ টাকা থেকে ৬,৭৫০ টাকার মধ্যে। উড়ানের সময়ের ভিত্তিতে দেশকে সাতটি ভাগে ভাগ করা হচ্ছে। এই ভাগগুলি হল– ৪০ মিনিটের কম, ৪০ থেকে ৬০ মিনিট, ৬০ থেকে ৯০ মিনিট, ৯০ থেকে ১২০ মিনিট, ১২০ থেকে ১৫০ মিনিট, ১৫০ থেকে ১৮০ মিনিট এবং ১৮০ থেকে ২১০ মিনিট। সব রুটেই টিকিটের সর্বোচ্চ দাম বেঁধে দেবে সরকার।’  তার আগে আজ সরকারের পক্ষ থেকে দিল্লি-মুম্বই রুটের টিকিটের দাম জানিয়ে দেওয়া হল। তবে অন্য কোনও রুটের টিকিটের দাম এখনও জানানো হয়নি।

জনপ্রিয়

Back To Top