আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বালাকোট স্ট্রাইকের বর্ষপূর্তিতে প্রাক্তন বায়ুসেনা শোনালেন সেই রাতের কথা। যেখানে দেওয়া হয়েছিল জঙ্গি হামলার কড়া জবাব। রাতের অন্ধকারে ঝুঁকি নিয়ে ১২টি মিরাজ ২০০০ যুদ্ধবিমান উড়ে গিয়েছিল পাকিস্তানের আকাশে। আর তারপর গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল ইমরান খানের দেশের জঙ্গিঘাঁটি বালাকোট। ২০১৯ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি ছিল দিনটা। আজ ২০২০ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি। বালাকোট এয়ারস্ট্রাইকের ১ বছর পূর্ণ হল।
তৎকালীন বায়ুসেনা প্রধান বলছেন, একটা বড় অংশের জৈশ জঙ্গি, প্রশিক্ষকরা, শীর্ষ কমান্ডাররা, জেহাদিরা, সেই হামলায় মারা গিয়েছিল। যদিও পাকিস্তান তা মানতে চায়নি। বিএস ধনোয়ার দাবি, বালাকোট এয়ারস্ট্রাইকের মধ্য দিয়ে পাকিস্তানকে একটি স্পষ্ট বার্তা দেওয়া গিয়েছে, জঙ্গিরা যেখানেই থাকুক ঘরে ঢুকে মেরে আসব। 
উল্লেখ্য, পুলওয়ামার জঙ্গি হামলার জবাবে বালাকোটে ভারতের এয়ারস্ট্রাইক মেনে নিতে পারেনি পাকিস্তান। ২৬ ফেব্রুয়ারির পরই ২৭ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তান পাল্টা ভারতের আকাশসীমায় ঢোকে। তখন তাড়া করে ভারতীয় বায়ুসেনার মিগ। মিগ যুদ্ধবিমানে ছিলেন উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান। ভুল করে তিনি পাকিস্তানে অবতরণ করেন। কিন্তু তারপরও ভারত–পাক স্নায়ুযুদ্ধে পরাজিত হয়ে পাকিস্তান তাঁকে ভারতে পাঠাতে বাধ্য হয়।

জনপ্রিয়

Back To Top