আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনের আগে জমে উঠল রাজধানীর রাজনীতির ময়দান। আর এখানে এই পরিস্থিতি তৈরি করার কারিগর দু’‌জন, অমিত শাহ এবং অরবিন্দ কেজরিওয়াল। আর এই আকচা–আকচি কার্যত অব্যাহত। কেউ কাউকে এক ইঞ্চি জমি ছাড়তে নারাজ। 
ঠিক কী ঘটেছে?‌ ঘন্টাখানেক আগে দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দিল্লির সরকারকে আক্রমণ করে জানান, তারা প্রতিশ্রুতি পূরণে ব্যর্থ হয়েছে। যে ওয়াইফাই বিনামূল্যে দেওয়ার কথা বলা হয়েছিল তা পাওয়া যাচ্ছে না। এই ওয়াইফাই পাওয়ার বিস্তর চেষ্টা করতে গিয়ে মোবাইলের ব্যাটারি ফুরিয়ে গিয়েছে তাঁর। প্রত্যুত্তরে কেজরিওয়াল জানান, কেবলমাত্র ইন্টারনেট নয়, ফ্রি ব্যাটারি চার্জ দেওয়ার ব্যবস্থাও করা আছে শহরে। বিনা বিদ্যুৎ খরচ করে তা করা যাবে বলে টুইটারে তুলোধনা করেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী। 
এখানেই শেষ নয়। কেজরিওয়াল কটাক্ষ করে বলেন, ফ্রি পরিষেবা সীমিত হয়। আর অর্থনীতির পক্ষেও ভাল। গরীব মানুষের জন্য এই পরিষেবা। অমিত শাহ পাল্টা বলেন, লাগে রহো কেজরিওয়াল। যার বাংলা তর্জমা করলে দাঁড়ায় লেগে থাকো কেজরিওয়াল।

জনপ্রিয়

Back To Top