‌আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ সম্পূর্ণ নিরাপদ নয় আমজনতার আধারতথ্য। মাত্র ২৫০০ টাকা খরচ করলেই আধার পঞ্জিকরণ সফটওয়্যারের ওপরে একটি অবৈধ ‘‌সফটওয়্যার প্যাচ’‌ ব্যবহার করে আধার ডেটাবেস থেকে হাসিল করা যাচ্ছে তথ্য। এমনটাই দাবি করা হয়েছে একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে। আরও মারাত্মক তথ্য হল, এইভাবে গোটা দেশেই নাকি অনেক আধার পঞ্জিকরণ আধিকারিক বিভিন্ন সংস্থা ও ব্যক্তির হাতে তথ্য বেচে দিচ্ছেন!‌ আর কয়েকদিনের মধ্যেই ইউআইডিএআই কর্তৃপক্ষ আধার কার্ডে ‘‌ফেস রেকগনিশন’‌ প্রক্রিয়া চালু করতে চলেছে। তার আগে এই তথ্য আমজনতার দুশ্চিন্তা বাড়ালো।
কী করে কাজ করছে হ্যাকারদের এই অবৈধ ‘‌সফটওয়্যার প্যাচ’‌?‌ ওই সংবাদমাধ্যমে দাবি করা হয়েছে ‘‌বায়োমেট্রিক অথেন্টিকেশন’‌–এর মধ্যেই লগ ইনের একটি বিকল্প রাস্তা তৈরি করে দিচ্ছে। যেখান থেকে সহজে হাতানো যাচ্ছে তথ্য। এর মধ্যে বিদেশি হ্যাকারদেরও হাত থাকতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। কারণ, শুধু ভারত নয়, ভারতের সীমানার বাইরে থেকেও নাকি এই প্যাচ ব্যবহার করা যাচ্ছে। যেটাকে অত্যন্ত উদ্বেগের বলে মনে করছেন তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা।
ইতিমধ্যেই প্যাচটি পরীক্ষা করেছেন হ্যাকিং বিশেষজ্ঞ গুস্তাভ জর্কস্তেন। তাঁর কথায়, ‘যেই এই প্যাচটি বানাক না কেন, আধার সম্পর্কে তার নিখুঁত ধারণা রয়েছে। আধারের মূল প্রোগ্রামিং থেকে কোড চুরি করেই এই প্যাচ বানানো হয়েছে। জাভা লাইব্রেরিতে সামান্য রদবদল করেই যে কোনও কম্পিউটারেই এই কোড ব্যবহার করা যায়।’‌ ওই সংবাদমাধ্যমের রিপোর্টে এ–ও বলা হয়েছে, তথ্য যে ফাঁস হচ্ছে সেটা আধার পঞ্জিকরণ আধিকারিকদের অনেকেই জানেন। এটা নিয়ে তাদের কোনও হেলদোলও নেই। এদিকে তথ্যফাঁস হয়েই চলেছে।
‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top