আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ খুনে অভিযুক্ত দুষ্কৃতীদের ধরতে গিয়েছিলেন। চারপাশ থেকে আচমকাই ঝাঁকে ঝাঁকে ছুটে আসে গুলি। ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান উত্তরপ্রদেশের আট পুলিশ কর্মী। নিহতদের মধ্যে রয়েছেন এক ডেপুটি সুপার। তিন সাব ইনস্পেক্টর এবং চার জন কনস্টেবলও মারা যান গুলিতে। তিন জন জখম। তাঁদের হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। কানপুরের বিকারু গ্রামের ঘটনা। পুলিশের পাল্টা গুলিতে তিন দুষ্কৃতীও খতম হয়েছে। 
শুক্রবার ভোররাতে কুখ্যাত দুষ্কৃতী বিকাশ যাদবকে ধরতে বিকারু গ্রামে গেছিল পুলিশ। লখনউ থেকে ১৫০ কিলোমিটার দূরে এই গ্রাম। বিকাশের নামে ৬০টি মামলা ঝুলে রয়েছে। সাম্প্রতিক একটি খুনেও নাম জড়িয়েছে তার। তাকে গ্রেফতার করতে ওই গ্রামে ঢুকেই বাধা পায় পুলিশ। গ্রামে ঢোকার মুখে রাস্তা বন্ধ করে রাখা ছিল। জেসিবি বসিয়ে পথ আটকে দেওয়া হয়েছিল। বাধ্য হয়ে গাড়ি থেকে নেমে পায়ে হেঁটে পুলিশ গ্রামে ঢোকে। তখনই এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে শুরু করে বিকাশের শাগরেদররা।পুলিশ জানিয়েছে, বাড়ির ছাদে উঠে তিন দিক থেকে পুলিশের উপর গুলি চালানো হয়। তাতেই মৃত্যু হয় আট পুলিশকর্মীর। পুলিশের পাল্টা গুলিতে বিকাশের তিন সঙ্গীর মৃত্যু হলেও বিকাশ এখনও অধরা। পুলিশ জানিয়েছে, বিকাশের বিরুদ্ধে অভিযানের খবর পেয়ে ছক কষেই এই হামলা চালিয়েছে দুষ্কৃতীরা। কানপুরের এডিজি জেএন সিংহ জানিয়েছেন, পরিস্থিতির মোকাবিলায় কনৌজ ও কানপুরের দেহাত থেকে বিশাল পুলিশবাহিনী নিয়ে আসা হয়েছে। 
নিহত পুলিশকর্মীদের পরিবারকে সমবেদনা জানিয়েছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। ঘটনার রিপোর্ট চেয়েছেন তিনি। দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য ডিজিপি এইচসি অবস্তীকে নির্দেশও দিয়েছেন।

 

ছবি:‌ এএনআই

জনপ্রিয়

Back To Top