আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ উত্তরপ্রদেশের পর এবার দিল্লি। রাজধানীর ২০টি করোনা হটস্পট সিল করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেজরিওয়াল সরকার। শুধু তাই নয়, মুম্বইয়ের মতো দিল্লিতেও বাড়ির বাইরে পা রাখলেই মাস্ক পরার নির্দেশিকা জারি করেছে সরকার। এই প্রসঙ্গে দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী মনীশ সিসোদিয়া জানিয়েছেন, দিল্লির ২০টি এলাকায় প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের হোম ডেলিভারির ব্যবস্থা করা হবে। এখনও পর্যন্ত এই ২০টি করোনা হটস্পটের তালিকা প্রকাশ করা হয়নি। তবে জানা গিয়েছে, তাতে সদর বাজারের নাম যুক্ত রয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের রিপোর্ট অনুসারে দিল্লিতে এখনও পর্যন্ত ৫৭৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ৯ জনের। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২১ জন। স্বস্তির খবর এই যে, গত ২৪ ঘণ্টায় দিল্লিতে নতুন করে কোনও করোনা সংক্রমণ বা মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি। দিল্লিতে কনট প্লেসের কাছে একটি বিখ্যাত বাঙালি বাজার রয়েছে। বুধবার এই বাজার এবং সংলগ্ন এলাকা সিল করে দেওয়া হয়েছে। কারণ এই এলাকায় করোনা আক্রান্তের হদিশ পাওয়া গিয়েছিল। সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার নির্দিষ্ট সময়ের জন্য বাজারটি খোলা হবে। জানা গেছে, দেশের সার্বিক পরিস্থিতি এবং দিল্লির অবস্থা নিয়ে আলোচনার জন্য বুধবার মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের বাসভবনে একটি বৈঠক ডাকা হয়েছিল। উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈন এবং তাঁর আধিকারিকরা। বৈঠকে ছিলেন দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী মনীশ সিসোদিয়াও। সকলের উপস্থিতিতেই মাস্ক পরার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অরবিন্দ কেজরিওয়াল এদিন সন্ধ্যায় বলেন, ‘‌মাস্ক পড়লে সাময়িক ভাবে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোখা যাবে। তাই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বাইরে বেরোলেই মাস্ক পরতে হবে। বাড়িতে তৈরি সুতির মাস্কেও কাজ হবে। কিন্তু মাস্ক ছাড়া বেরোনো যাবে না।’‌
 

জনপ্রিয়

Back To Top