উদ্দালক ভট্টাচার্য:‌ ভারতীয় পুরাণে পিতার আদর্শ উদাহরণ শূলপাণি। কিন্তু তার পিতৃত্ব নিয়ে নানারকম সমালোচনা চলে আসছে সেই আদি কাল থেকেই। মানে একজন পিতা কতটা দায়িত্বজ্ঞানহীন হতে পারেন, সংসারে তিনি কতটা উদাসীন হতে পারেন, তার এক অসাধারণ উদাহরণ শিব। তাই একাধিক লোকগাঁথায়, গানে, গল্পে যতবার, যত অধ্যায়ে দায়িত্বজ্ঞানহীন পিতার প্রসঙ্গ এসেছে, ততবার আলোচিত হয়েছেন শিব।
কিন্তু, সত্যি কী তাই? সত্যি কী দায় এড়িয়ে যাওয়ার জন্যই তাঁকে মনে রাখতে হবে? পিতার ভূমিকা কী এমনই?
কয়েকদিন আগে আসানসোলে এক গোলমালের ঘটনায় মৃত্যু হয় এক স্কুল পড়ুয়া ছাত্রের। সেই মৃত্যুর পরে সেখানে ধর্মে ধর্মে হিংসা ছড়িয়ে পরতেই পারত। সেই হত উচ্চমাধ্যমিক পড়ুয়ার পিতা, যিনি একজন ধর্মগুরুও বটে, চাইতেই পারতেন প্রতিশোধ। তার অঙ্গুলি হেলনে সেদিন আরও অনেক পিতার সন্তান হয়ত আর বাড়ি ফিরতে পারত না, কিন্তু তিনি সে কাজটি করেননি। সন্তান হারানোর বেদনা নিয়েও তিনি শান্ত ছিলেন, ধীর ছিলেন। "ইমাম সাহেবের ছেলের মৃত্যুর ঘটনাটা শুনে প্রথমে সবারই মাথায় রক্ত চড়ে গিয়েছিল" বলেছিলেন মহল্লার বাসিন্দা মুহম্মদ ফারহাদ মালিক। "এটা তো রক্ত গরম করে দেওয়ার মতোই ঘটনা।" 
একটা মাইক হাতে বেরিয়ে পড়লেন ইমাম। মহল্লায় মহল্লায় ঘুরে সবার প্রতি আবেদন জানালেন, ‘‌আপনারা শান্ত হোন।’‌ পিতৃত্ব কী এমনও নয়? আসলে, পিতা, যে শেষ পর্যন্ত একজন পুরুষ, ঐতিহাসিক কারণেই সে মাতৃত্বের থেকে অনেকটাই আলাদা। মা, শব্দটার মধ্যেই একটা আপন করে নেওয়া আছে। মানে, যেন সম্পর্কের সমীকরণ তৈরি হয়েছে কেবল দুটিতে, সেখানে আর কেউ প্রবেশ করতে পারে না। তাই ভাষায় এ কথা প্রতিষ্ঠিত, যে সন্তান হারানোর বেদনা শুধু মায়ের হয়, বাবার নয়। কিন্তু ইমাম সে কথা ভুলিয়ে দিয়েছেন। ছেলের মৃত্যুর প্রতিশোধ না নিয়েই ভুলিয়ে দিয়েছেন। 
ইমাম সেদিন বুঝেছিলেন, যে সন্তানকে তিনি হারিয়েছেন, সে বেঁচে থাকলেও চাইতো না, আরও মানুষ মরুক। পিতৃত্ব যে বড় দায়। এ পাড়ার বোল্টু ও পাড়ার ন্যালা বা সাবির, সকলেই যে সেই পিতার ছেলের বয়সী।
বেঁচে থাক তবে এমন পিতৃত্ব, যে শেখাবে, বন্ধুর পাশে দাঁড়াতে। যে শেখাবে, ঘুষ দিয়ে চাকরি না পেতে, যে শেখাবে পড়ার বইটা শুধু না, মানুষ চেনাটাও সমান দরকারি। এবং শেষ পর্যন্ত যে শেখাবে, নিজেকে না, সবাইকে শান্তিতে, নিরাপদে রাখতে। নিজের নিজের সন্তানকে কম খাইয়েও রাস্তার ধারের অনাহারে থাকা ছেলেটার হাতে তুলে দেবে কিছুটা খাবার। নিজের সন্তানকে হারিয়েও যে প্রতিশোধ নিতে চাইবে না। “সকলেই যে তাঁর ছেলের বয়সী”।
স্যালুট, ইমাম মহম্মদ ইম্মাদুল্লাহ।

 

 

সন্তানহারা পিতা ইমাম মহম্মদ ইম্মাদুল্লাহ। 
 

জনপ্রিয়

Back To Top