আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ২০১৯ সালে দেশের সবথেকে জনপ্রিয় খাবারের তকমা পায়। লকডাউনও সেই জনপ্রিয়তা কাড়তে পারেনি। এখন দেশবাসীর সবথেকে প্রিয় খাবার সেই বিরিয়ানিই। 
লকডাউনে কোন খাবার কত বিক্রি হয়েছে, তার একটি পরিসংখ্যান বের করেছে সুইগি— ‘‌স্ট্যাটইটিস্টিক রিপোর্ট:‌ কোয়ারেন্টাইন’‌। তাতে দেখা গেছে, করোনার কারণে ঘরবন্দি থাকার সময় দেশবাসী সব থেকে বেশি অর্ডার করেছে এই ভাত–মাংসর যুগলবন্দী পদই। সারা দেশে পাঁচ লক্ষ ৫০ হাজার বার বিরিয়ানি অর্ডার করা হয়েছে এসময়ে। এ থেকেই স্পষ্ট, লকডাউনে মানুষের জীবনযাপন সহ অনেক অভ্যাসই বদলেছে। কিন্তু বিরিয়ানি–প্রীতি একই রয়ে গেছে। 
বিরিয়ানির পরেই এই তালিকায় রয়েছে বাটার নান আর মশলা ধোসা। দ্বিতীয়স্থানে থাকা বাটার নান অর্ডার করা হয়েছে ৩ লক্ষ ৩৫ হাজার ১৮৫ বার। তৃতীয়স্থানে থাকা মশলা ধোসা অর্ডার করা হয়েছে ৩ লক্ষ ৩১ হাজার ৪২৩ বার। 
এ তো গেল নোনতা পদ। মিষ্টির নিরিখে লকডাউনে সবথেকে বেশি অর্ডার করা হয়েছে চকো লাভা কেক। এক লক্ষ ২৯ হাজার বার অর্ডার করা হয়েছে। তার পরেই রয়েছে গুলাব জামুন। ৮৪ হাজার ৫৫৮ বার অর্ডার করা হয়েছে এই মিষ্টি। তৃতীয় স্থানে থাকা বাটারস্কচ মুস অর্ডার করা হয়েছে ২৭ হাজার ৩১৭ বার। 
সুইগির এই পরিসংখ্যান অনুযায়ী, অর্ডারের সংখ্যার নিরিখে বিরিয়ানি কিন্তু টানা চার বছর ধরে শীর্ষ স্থান দখল করে রেখেছে। ২০১৯ সালে প্রতি মিনিটে দেশে ৯৫ প্লেট চিকেন বিরিয়ানি বিক্রি হয়েছিল। এই তথ্যও দিয়েছিল সুইগির পরিসংখ্যান। তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে ছিল মশলা ধোসা। তৃতীয় স্থানে পনীর বাটার মশলা। তার পরে তালিকায় ছিল চিকেন ফ্রায়েড রাইস। 

জনপ্রিয়

Back To Top