আজকাল ওয়েবডেস্ক: রাজ্য রাজনীতি একাই দায়িত্ব নিয়ে সরগরম করে দেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। অভিনেতা অনির্বাণ ভট্টাচার্যের লেখা 'নিজেদের মতে, নিজেদের গান' নিয়ে সম্প্রতি এক সংবাদপত্রেকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে দিলীপ ঘোষ মন্তব্য করেছেন, 'শিল্পীদের বলছি আপনারা নাচুন, গান। ওটা আপনাদের শোভা পায়। রাজনীতি করতে আসবেন না। ওটা আমাদের জন্য ছেড়ে দিন। নাহলে রগড়ে দেব। ওরা জানে আমি কীভাবে রগড়াই।' শিল্পীদের বাকস্বাধীনতা এর আগে ক্ষুন্ন করার চেষ্টায় মত্ত থাকতে দেখা গিয়েছিল গেরুয়া শিবিরকে। কিন্তু ভোট চলাকালীন এই ধরনের আপত্তিকর মন্তব্য মুখ বুঝে সহ্য করতে পারেননি অনেকেই। বিজেপি নেত্রী ও অভিনেত্রী রূপাঞ্জনা মিত্রর পর এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় দিলীপ ঘোষের মন্তব্যের কড়া জবাব দিলেন সুদীপ্তা চক্রবর্তী। লিখেছেন, 'আপনি বোধ হয় জানেন না যে শিল্পীরা রগড়ে রগড়েই শিল্পী হন। যেদিন থেকে শুরু করেন শিল্পী হবার যাত্রা, রগড়ানি শুরু হয় সেদিন থেকেই। যে কোন শিল্পকর্মের প্রতি দখল জন্মেই আয়ত্ত করা যায়না। ক্রমাগত রগড়াতে রগড়াতে যদি বা শিল্পী হওয়া যায়, তারপর চলে শিল্পী হয়ে টিঁকে থাকার লড়াই..... আমৃত্যু। সেখানেও রগড়াতে হয় বইকি। রোজ। তাই দয়া করে শিল্পীদের রগড়ে দেবার ভয় দেখাবেন না। ওটার অভ্যাস আছে। রগড়ানি খেয়ে উঠে দাঁড়াবার অভ্যাসও আছে।' লাল গোলাপ সহ দিলীপ ঘোষকে ভাল থাকার বার্তাও দিয়েছেন অভিনেত্রী। সামান্য রোজগেরে শিল্পী থেকে সাধারণ মানুষ, অনেকেই সুদীপ্তাকে সমর্থন করেছেন। এর আগে জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত গায়িকা ইমন চক্রবর্তী ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে একটি পোস্ট করেছিলেন। ভবানীপুরের বিজেপি প্রার্থী রুদ্রনীল ঘোষ সরাসরি দিলীপ ঘোষকে সমর্থন করলেও, এই কথার পরিপ্রেক্ষিতে মন্তব্য করতে নারাজ অভিনেতা অনির্বাণ ভট্টাচার্য। 

জনপ্রিয়

Back To Top