দীপঙ্কর নন্দী
‘‌গায়ের জোরে সংসদের উভয় কক্ষে কৃষি বিল পাশ করানো হল। চারিদিক থেকে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে। সংসদে তৃণমূলের সদস্যরা সোচ্চার হয়েছেন। আমরা এই দিনটিকে কালা দিন বলছি। আগামী দিনে কী হবে পরে আমরা জানিয়ে দেব।’‌
রবিবার বেহালায় কেন্দ্রীয় জনবিরোধী নীতির বিরুদ্ধে সারাদিন অবস্থান করেন তৃণমূলের কর্মীরা। প্রধান বক্তা ছিলেন তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চ্যাটার্জি। মঞ্চে স্থানীয় কয়েকজন কংগ্রেস নেতা তৃণমূলে এসে যোগ দেন। পরে পার্থ চ্যাটার্জি সাংবাদিক বৈঠক করেন। ছিলেন ওমপ্রকাশ মিশ্র। পার্থ বলেন, ‘বিজেপি সাধারণ মানুষের কণ্ঠস্বরকে বন্ধ করে দিতে চাইছে। গণতন্ত্রকে হত্যা করছে। সংসদীয় রাজনীতিকে এরা তোয়াক্কা করছে না। সকলকে অন্ধকারে রেখে এই কৃষি বিল পাশ করানো হল। আমরা এর তীব্র বিরোধিতা করছি। গণতন্ত্রকে কবরে পাঠিয়ে দিচ্ছে এরা, যা কোনও দিন হয়নি।’‌ আইএএস জঙ্গিদের নিয়ে রাজ্যপালের বক্তব্য সম্পর্কে পার্থ বলেন, ‘‌বাংলা সন্ত্রাসের আঁতুড়ঘর কিনা সেটা তো প্রশাসন দেখবে। এর পেছনে কতটা রাজনীতি, এ সবই নিশ্চয় দেখবে প্রশাসন। তবে এটুকু বলতে পারি, বাংলা অপরাধীদের জায়গা নয়। এটা নিয়ে যাঁরা রাজনীতি করছেন, তাঁরা ভুল করছেন। বাংলায় বিজেপি কোনও প্রভাব বিস্তার করতে পারবে না।’‌ পার্থ বলেন, ‘‌দেশের প্রতিষ্ঠানগুলোকে বিক্রি করে দিচ্ছে। বিজেপি–র সবকা সাথ সবকা বিকাশ, সবকা হাত সবকা বিনাশে পরিণত হয়েছে। একটার পর একটা জনবিরোধী নীতি নিচ্ছে বিজেপি সরকার।’‌ অবস্থানে ছিলেন দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার তৃণমূলের সভাপতি শুভাশিস চক্রবর্তী–সহ এলাকার ওয়ার্ড কো–অর্ডিনেটররা।

জনপ্রিয়

Back To Top