আজকালের প্রতিবেদন
শহরে সংক্রমণ ঠেকাতে আবার এলাকাভিত্তিক সিল করতে চলেছে কলকাতা পুরসভা। কলকাতার ১৯টি জায়গা যেখানে গত ১৪ দিনে সংক্রমণ বেড়েছে, সেইসব জায়গা ফের ব্যারিকেড দিয়ে ঘিরে ফেলার পরিকল্পনা পুর কর্তৃপক্ষের। শনিবার পুরসভার প্রধান প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম এ বিষয়ে জানান, কন্টেনমেন্ট জোনগুলিতে সুরক্ষা বিধি যথাযথ মানা হচ্ছে না বলে অভিযোগ উঠেছে। তাই পুরসভার পক্ষ থেকে ওইসব এলাকায় কড়া নজরদারি চালাতে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।
রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণ থেকে মুক্ত হয়েছেন ৫৯৫ জন। মোট সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছুটি পেয়েছেন ১৪,১৬৬ জন। রাজ্যে সুস্থতার হার বেড়ে হল ৬৬.৭২ শতাংশ। এদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৭৪৩ জন। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২১,২৩১। বর্তমানে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৬,৩২৯। নতুন করে আরও ১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। রাজ্যে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৭৩৬।  
এদিন স্বাস্থ্য দপ্তরের বুলেটিনে জানানো হয়, কলকাতায় নতুন করে ২৪২ জন আক্রান্ত হয়েছেন। বিভিন্ন জেলা থেকে ক্রমশ করোনা–আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। উত্তর ২৪ পরগনায় ১৬৪, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৯৭, হাওড়ায় ৮২, মালদায় ৪০ জন–সহ আরও একাধিক জেলা থেকে আক্রান্তের খবর এসেছে। মৃত্যুর তালিকাতেও কলকাতার সংখ্যাই বেশি রয়েছে। ইসলামপুর উর্দু অ্যাকাডেমিতে ১০০ শয্যার কোভিড হাসপাতাল করেছে স্বাস্থ্য দপ্তর।
মধ্য কলকাতার তৃণমূল নেতা তমোঘ্ন ঘোষ করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি। লেক টাউনে ড্যাফোডিল নার্সিংহোমের এক কর্তার মৃত্যু হয়েছে। ২২ জুন তাঁকে বাইপাসের এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাঁর বাড়ি দক্ষিণ কলকাতার বিদ্যাসাগর কলোনিতে। এদিন তাঁর মৃত্যু হয়। মৃতের স্ত্রী করোনা–আক্রান্ত হওয়ায় চিকিৎসাধীন হাসপাতালে।
এনআরএসে এক নার্স–সহ ৮ রোগীর করোনা ধরা পড়েছে। তাঁদের শারীরিক অবস্থা বুঝে কলকাতা মেডিক্যাল, বেলেঘাটা আই ডি এবং এম আর বাঙুরে স্থানান্তর করা হয়েছে। করোনার উপসর্গ থাকায় ভর্তির পর সংশ্লিষ্ট বিভাগের পৃথক আইসোলেশন ওয়ার্ডে রেখেই চলছিল চিকিৎসা। নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হলে পজিটিভ আসে। অন্যান্য রোগী কিংবা চিকিৎসক, নার্সদের সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা নেই বলে জানিয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। করোনা সংক্রমণের জেরে এসএসকেএমে নিউরো সার্জারি বিভাগ আপাতত বন্ধ করা হল। চলবে জীবাণুমুক্ত করার কাজ। কারণ ভর্তি হওয়া এক রোগীর করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। রোগীকে অন্য হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। সিএবি–র এক কর্মী করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি। আগামী এক সপ্তাহ জীবাণুমুক্ত করার জন্য সিএবি–র অফিস বন্ধ থাকবে।‌

জনপ্রিয়

Back To Top