‌আজকালের প্রতিবেদন
সপ্তাহের শুরুতে সোমবার পোলক স্ট্রিটে বড় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটল। আগুন লাগার পর বহুতলের একটি ঘরে আটকে পড়েছিলেন দীনবন্ধু দাস নামে এক ব্যক্তি। ঝুঁকি নিয়ে কাঠের সিঁড়ি বেয়ে ওপরে উঠে সেই ব্যক্তিকে উদ্ধার করলেন দমকল কর্মীরা। আগুন লাগার পরেই ওই বহুতলে থাকা লোকজনদের বাইরে নিয়ে আসা হয়। দীর্ঘক্ষণের চেষ্টায় দমকলের ১১টি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।
ঘটনাস্থলে যান কলকাতা পুরসভার প্রশাসক মণ্ডলীর প্রধান ফিরহাদ হাকিম। তিনি বলেন, ‘‌কী করে আগুন লাগল দেখা হচ্ছে। দমকল খুবই ভাল কাজ করেছে। ওখানে অফিস ছিল। প্রচুর কাগজ পোড়া গন্ধ পাওয়া গেছে। দমকল সব দেখে রিপোর্ট দেবে।’‌ এদিন বিকেলে আগুন ধরে। প্রথমে ৬টি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে যায়। দমকল বাড়িটির সামনে এবং পিছন থেকে আগুন নেভানোর চেষ্টা করে। ল্যাডার নামানো হয়। প্রায় ঘণ্টাখানেকের বেশি সময় ধরে আগুন নেভানোর কাজ চলে। এক সময় আগুন হঠাৎ বেড়ে যায়। আগুনের তাপে শেড ভেঙে পড়ে যায়। ওই বাড়িতে বেশ কয়েকটি অফিস এবং ব্যাঙ্কের শাখা রয়েছে। কী কী জায়গা আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তা বোঝা যাবে পরে। একজন ব্যক্তি ছাড়া আর কেউই আগুনে আটকে পড়েননি। সাময়িকভাবে ওই রাস্তার যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়। কয়েকটি অফিস বন্ধ ছিল। অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে অনেকেই খোঁজখবর নিতে চলে আসেন ঘটনাস্থলে। রাত ৮টা নাগাদ পরিস্থিতি সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে আসে।‌ এদিকে, নিউ টাউনের সিটি সেন্টার ২–এর কাছে একটি ভলভো বাসে আগুন লাগে সোমবার। একটি আবাসনের কাছে বাসটি দাঁড়িয়ে ছিল। বেলা ৩টে নাগাদ হঠাৎ বাসটিতে আগুন ধরে যায়। ওই আবাসনের লোকেরাই আগুন নেভানোর উদ্যোগ নেন। দমকলের একটি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top