আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ রাতের শহরে দুর্ঘটনার প্রাণ গেল তরুণ সাংবাদিকের। নিহত সাংবাদিকের নাম সোহম মল্লিক। তাঁর সতীর্থ ময়ূখ রঞ্জন ঘোষ গুরুতর জখম। আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি তিনি। বৃহস্পতিবার ভোর রাতে দক্ষিণ কলকাতার রাস্তা দিয়ে মোটরবাইকে যাওয়ার সময় দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সোজা একটি গাছে ধাক্কা মারে মোটরবাইকটি। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় সোহমের। গুরুতর জখম অবস্থায় উদ্ধার করা হয় ময়ূখকে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত কোমায় চলে গিয়েছেন তিনি। 
পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, রাত সাড়ে ৩ টে নাগাদ মোটরবাইকে যাচ্ছিলেন সোহম এব‌ং ময়ূখ। লর্ডসের মোড়ের কাছে দুর্ঘটনাটি ঘটে। বাইকসমেত রাস্তায় দু’জনকে পড়ে থাকতে দেখে অনলাইন খাবার ডেলিভারি সংস্থা সুইগির কিছু কর্মী ছুটে আসেন। তাঁরাই দু’জনকে তুলে এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে সোহমকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকেরা। তড়িঘড়ি সিসিইউ–তে নিয়ে যাওয়া হয় ময়ূখকে। পরে সেখান থেকে মল্লিকবাজারের নিউরো সায়েন্সে স্থানান্তরিত করা হয়। মাথায় গুরুতর চোট পেয়েছেন তিনি। তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা। জানা গেছে, দুর্ঘটনায় ময়ূখের একটি চোখ মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। চোখটি নষ্ট হয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন চিকিৎসকরা।
ময়ূখের পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে, বৃহস্পতিবার রাতে সোহম তাদের বাড়িতে আসেন। রাতে সেখানেই থাকার কথা ছিল তাঁর। রাত সাড়ে ১১ টা নাগাদ যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ইমনকল্যাণ লাহিড়ির বাড়ি যান তাঁরা। সেখান থেকে ফেরার পথেই দুর্ঘটনাটি ঘটে। বিষয়টি খতিয়ে দেখছে লেক থানার পুলিশ। 
ময়ূখ রঞ্জন ঘোষ দীর্ঘদিন এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে সুনামের সঙ্গে কাজ করেছেন। কিছুদিন আগেই কলকাতায় ফেরেন তিনি। যোগ দিয়েছিলেন এক টিভি চ্যানেলে। সদ্যই সেই চাকরি ছেড়ে নতুন চাকরিতে যোগ দেওয়ার কথা ছিল তাঁর। কিন্তু তাঁর আগেই এই দুর্ঘটনা। সোহম মল্লিকের বাড়ি ঝাড়খণ্ডে। আগামী মাসেই বিয়ে ঠিক হয়েছিল তাঁর। 

জনপ্রিয়

Back To Top