রিনা ভট্টাচার্য: পথ–‌দুর্ঘটনায় আহতদের দ্রুত চিকিৎসা পরিষেবা দিতে পুজোর আগেই কাজ শুরু করবে ‘‌পথবন্ধু’।‌ প্রথমেই পশ্চিমবঙ্গ পুলিশের আওতায় থাকা এলাকার ১০০টি অতি দুর্ঘটনাপ্রবণ অঞ্চলে কাজ শুরু করবে পথবন্ধু। স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে খবর, মূলত মুম্বই হাইওয়ের ধারেই ২০ থেকে ২৫ কিলোমিটার অন্তর পথবন্ধুরা থাকবে। পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ রাজ্যের বিভিন্ন হাইওয়ের ৩৬০টি  দুর্ঘটনাপ্রবণ এলাকা চিহ্নিত করেছে। প্রথম পর্যায়ে এর মধ্যে থেকে ১০০টি অতি দুর্ঘটনাপ্রবণ এলাকা বেছে নেওয়া হয়েছে। এই এলাকাগুলি মূলত পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, পূর্ব মেদিনীপুর জেলায়। এরপর দিল্লি হাইওয়ে, দুর্গাপুর এক্সপ্রেসওয়ে, শিলিগুড়ি, মালদা জেলাতেও পথবন্ধুরা থাকবেন। 
হাইওয়ের ধারে রাজ্য পুলিশের চিহ্নিত ধাবা, পেট্রোল পাম্প, চায়ের দোকান, স্থানীয় ক্লাবগুলিতে ১০ জনের একটি দল তৈরি করে দেওয়া হবে। অনেক জায়গায় হাইওয়ের পাশে বাড়ি চিহ্নিত করা হয়েছে, সেই বাড়িগুলির বাসিন্দারা সামাজিক কাজ করতে ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। আগামী সপ্তাহ থেকে প্রশিক্ষণ দেওয়ার কাজ শুরু হয়ে যাবে। স্বাস্থ্য দপ্তর থেকেই চিকিৎসক ও নার্সের দল তৈরি করে বিভিন্ন জায়গায় প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে অথবা অক্টোবরের শুরুতে এঁরা কাজ শুরু করবেন, যাতে উৎসবে শামিল মানুষজন দুর্ঘটনায় পড়লে  সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়া যায়। পথবন্ধুদের কাজ হবে তাঁদের আওতার মধ্যে থাকা হাইওয়েতে দুর্ঘটনা ঘটলে আহতদের উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা করা।  পুলিশকে দ্রুত খবর দেওয়া। অ্যাম্বুল্যান্স ডাকা। দুর্ঘটনাগ্রস্ত ব্যক্তির আত্মীয়দের খবর দেওয়া। পুলিশ এবং হাসপাতালে যোগাযোগের জন্য পথবন্ধুদের বিশেষ যন্ত্র দেওয়া হবে। প্রাথমিক চিকিৎসার প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম স্বাস্থ্য দপ্তর দেবে। হাইওয়েগুলিতে ব্যানার ও ফ্লেক্স টাঙানো থাকবে। 
শুনশান এলাকায় দুর্ঘটনা ঘটলে খবর পেতেই অনেক সময় লেগে যায়। চিকিৎসা শুরু করতে দেরি হয়। যার জেরে অনেকের মৃত্যু হয়। সঠিক সময়ে চিকিৎসা শুরু হলে অনেকেরই প্রাণ বাঁচানো যেতে পারে। এই লক্ষ্যেই পথবন্ধু প্রকল্প শুরু করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। ১ জুলাই চিকিৎসক দিবসে এসএসকেএম হাসপাতালের অনুষ্ঠানে ‘‌পথবন্ধু’‌র বিষয়টির ঘোষণা করেন তিনি। পথবন্ধুর লোগোটি মুখ্যমন্ত্রী নিজেই এঁকে দিয়েছেন। পথবন্ধুর সাহায্য পেতে একটি টোল–ফ্রি নম্বর চালু হবে। ওই নম্বরে ফোন করলেই পথবন্ধুরা দুর্ঘটনাস্থলে পৌঁছে যাবেন। পরিকাঠামো সম্পূর্ণ হলে এই নম্বর রাজ্য পুলিশ ও স্বাস্থ্য দপ্তর বিজ্ঞাপন দিয়ে জানিয়ে দেবে। ‌‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top