কাকলি মুখোপাধ্যায়: মনখারাপের মহানবমীর সকালে এলাকার প্রবীণ–প্রবীণাদের নিয়ে ঠাকুর দেখতে বেরিয়ে পড়লেন কলকাতা পুরসভার ৬৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সুদর্শনা মুখার্জি। একডালিয়া এভারগ্রিনের পুজোমণ্ডপ দিয়ে ঠাকুর দেখা শুরু হল ওঁদের। নতুন শাড়ি–জামায় সেজেগুজে রীতিমতো উচ্ছ্বসিত প্রবীণ–‌প্রবীণারা। শীর্ষকের নাম ‘‌বড় একা লাগে’‌। যদিও এক প্রবীণা জোরের সঙ্গে জানালেন, ‘‌কে বলেছে একা লাগে!‌ না, বড় একা লাগে না। এঁদের সঙ্গে বেরিয়ে, আনন্দে মেতে কেন একা লাগবে?‌’‌ আর, কাউন্সিলর সুদর্শনা মুখার্জি জানালেন, ‘‌গত ৫ বছর ধরে এলাকার বয়স্কদের নিয়ে ঠাকুর দেখতে বেরোই। ওঁদের কারও ছেলেমেয়ে বাইরে থাকে, কেউ একেবারেই একা। পুজোর আনন্দে মাতার ইচ্ছে তো সকলের আছে!‌ তাই একটা বাসে ওঁদের নিয়ে বেরিয়ে পড়ি। ওঁদের আনন্দের সঙ্গে নিজের আনন্দ ভাগ করে নিই। অন্য বছর সপ্তমীতে বেরোই। এ বছর বৃষ্টির জন্য নবমীতে বেরোলাম। তাও বেশি দূর যাওয়া যাবে না। সকাল থেকেই আকাশের যে–‌রকম মুখভার!‌ হঠাৎ বৃষ্টি এলে সমস্যায় পড়তে হতে পারে। প্রসাদ খেয়ে আমরা ফিরে যাব।’

জনপ্রিয়

Back To Top