শান্তনু সিংহরায়: বিধাননগর পুরনিগম এলাকার সর্বত্র বসছে উন্নত আলো। রাস্তা, পার্ক, গলিপথ–‌সহ যেসব জায়গায় এখন সোডিয়াম ভেপার বাতি রয়েছে, সেগুলি সরিয়ে দেওয়া হবে। তার বদলে সেখানে লাগানো হবে এলইডি আলো। নতুন জায়গায় আলো বসানোর ক্ষেত্রেও এলইডি বাতি ব্যবহার করা হবে। আলোকিতকরণের এই কর্মসূচিতে সাহায্য নেওয়া হচ্ছে আধুনিক প্রযুক্তির। জি পি এস–‌এর আওতাধীন থাকবে ব্যবস্থা। কোন আলোটি খারাপ হয়েছে বা কোথায় বাতির প্রয়োজন, সঙ্গে সঙ্গে জানা যাবে। দ্রুত নেওয়া যাবে ব্যবস্থা। থাকবে টাইমার। সন্ধে নামলে বাতিগুলি এমনি জ্বলে উঠবে। আবার সকাল হলে বন্ধ হয়ে যাবে। রাজ্য সরকারের গ্রিন সিটি মিশন প্রকল্পে পুরনিগম এলাকা জুড়ে আলোকিতকরণের এই কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে। কাজ করবে কেন্দ্রীয় সরকারি সংস্থা ইইএসএল (‌‌এনার্জি এফিসিয়েন্সি সার্ভিসেস লিমিটেড)‌ এবং রাজ্য সরকারি সংস্থা ওয়েবেল (‌‌ওয়েস্টবেঙ্গল ইলেকট্রনিক্স ইন্ডাস্ট্রি ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশন)‌‌। ইতিমধ্যেই কাজ শুরু হয়েছে। বিধাননগর পুরনিগমের মেয়র পারিষদ (‌‌আলো)‌‌ সুধীর সাহা বলেন ‘‌আলো নিয়ে অনেকদিন ধরে সমস্যা ছিল। বাসিন্দারা দাবি জানাচ্ছিলেন। আমি সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করছিলাম। এবার সেই  সমস্যা মিটছে। ৪১টি ওয়ার্ডেই সর্বত্র পর্যাপ্ত এলইডি আলো বসবে। ১, ৫ ও ৬ নম্বর বরো এলাকায় আলোকিতকরণের কাজ করছে ইইএসএল। এর জন্য রাজ্য সরকার ৮ কোটি ৯১ লক্ষ ৭৩ হাজার ২১৩ টাকা দিচ্ছে। ২, ৩ ও ৪ নম্বর বরো এলাকায় কাজ করবে ওয়েবেল। এ নিয়ে তার পূর্ণাঙ্গ প্রকল্প রিপোর্ট জমা দিলেই দ্রুত আনুসঙ্গিক প্রক্রিয়া শেষ করে কাজ শুরু করা হবে। ৭ বছরের মধ্যে আলো খারাপ হলে তা বদল করে দিতে হবে সংস্থাকেই। জি পি এস, টাইমার–‌সহ আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার হবে কর্মসূচিতে। সব জায়গায় উন্নত আলোর ব্যবস্থার পাশাপাশি এলইডি আলোর জন্য বিদ্যুতের বিল বাবদও খরচ কমবে।’‌
পুরনিগম সূত্রে খবর, ৪১টি ওয়ার্ডের কোথায় কতগুলি ইলেকট্রিকের পোস্ট আছে, কত ওয়ার্ডের এলই ডি আলো প্রয়োজন, প্রতিটি ওয়ার্ডে ঘুরে সমীক্ষা করা হয়েছে। এর ভিত্তিতে তৈরি হয়েছে চূড়ান্ত রিপোর্ট। কোথাও সোডিয়াম ভেপার ও সাধারণ আলো থাকবে না। প্রয়োজন অনুযায়ী ২৪, ৪৫, ৭০, ১৪০ ও ১৯০ ওয়ার্ডে এলইডি বসানো হবে। ইইএসএল, ১ থেকে ৭ নম্বর ওয়ার্ড এবং ২৯ থেকে ৪১ নম্বর ওয়ার্ড জুড়ে আলোকিতকরণের কাজ করবে। ৮ কোটি ৯১ লক্ষ ৭৩ হাজার ২১৩ টাকার এই প্রকল্প অনুমোদনের জন্য রাজ্য সরকারের কাছে পাঠানো হয়েছিল। বুধবার প্রকল্প অনুমোদন করে নগরোন্নয়ন দপ্তরের যুগ্মসচিব বিধাননগরের যুগ্ম কমিশনারকে চিঠি দিয়ে কাজ শুরু করতে বলেছেন। এর ভিত্তিতে কাজ শুরু করেছে ইইএসএল। বিদ্যুতের পোস্ট বদল বা নতুন পোস্ট বসানোর কাজ করবে বিধাননগর পুরনিগম।‌

জনপ্রিয়

Back To Top