আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ কোমা থেকে সেরে উঠে পুলিশকে দুই বন্ধুর নাম বলেছিলেন কলকাতার বাসিন্দা শৌভিক চ্যাটার্জি। এবার ২০১০ সালের ওই ঘটনার ছবিও এঁকে দেখান তিনি। ফলে ঘটনার ১০ বছর পর অসমের বাসিন্দা শশাঙ্ক দাস এবং ওডিশার বাসিন্দা জিতেন্দ্র প্রসাদকে গ্রেপ্তার করল পুলিশ। ২০১০ সালে কর্মসূত্রে বেঙ্গালুরুতে একটি বাড়র তিনতলায় একসঙ্গে থাকতেন ওই তিন যুবক। ওই বাড়ির ছাদ থেকে শৌভিককে ঠেলে ফেলে দিয়েছিল শশাঙ্ক এবং জিতেন্দ্র। ওই ঘটনার মূলে ছিল, শৌভিকের এক যুবতীর সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা যাঁকে পছন্দ করত শশাঙ্কও। তারপর কোমায় চলে যান শৌভিক। ২০১১–য় সেরে উঠে পুলিশকে দুই বন্ধুর নামও জানান। তারপর তারা গ্রেপ্তার হলেও জামিন পেয়ে যায় ২০১২–য় প্রমাণাভাবে। এবার পুরো ঘটনা মনে করে তার স্কেচ এঁকে পুলিশকে দেখিয়েছেন শৌভিক। সেটাই ওই ঘটনার সাক্ষ্যপ্রমাণ হিসেবে ধরেছে পুলিশ। দুই অভিযুক্তকেই এবার বেঙ্গালুরু থেকে গ্রেপ্তার করে আদালতে তোলে পুলিশ। তাদর সাত বছরের কারাদণ্ড হয়েছে।

জনপ্রিয়

Back To Top