আজকালের প্রতিবেদন- ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের মতো যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা বিভাগের ছাত্র–‌ছাত্রীরাও বাড়িতে বসেই ফাইনাল সেমেস্টারের পরীক্ষা দেবে। আগের সেমেস্টারগুলি থেকে ৪০ শতাংশ নম্বর এবং ফাইনাল সেমেস্টার থেকে ৬০ শতাংশ নম্বর দেওয়া হবে।  বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, করোনা পরিস্থিতিতে জুলাই পর্যন্ত কোনও পড়ুয়াকেই ক্যাম্পাসে আনা হবে না। হস্টেলও খোলা হবে না। আগস্ট থেকে পড়ুয়ারা ক্যাম্পাসে আসবে কিনা তা পরিস্থিতি বিচার করে জুলাইয়ের শেষে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। বৃহস্পতিবার কলা বিভাগের ফ্যাকাল্টি কাউন্সিলের বৈঠকে কর্তৃপক্ষের তরফে মৌখিকভাবে একথা বলা হয়। তারপরই ঠিক হয়, কলা বিভাগের ফাইনাল সেমেস্টারের পড়ুয়ারা বাড়িতে বসেই পরীক্ষা দিক। ৬০ শতাংশ নম্বরের জন্য এই মূল্যায়ন কীভাবে করা হবে, তা বিভিন্ন বিভাগগুলি ঠিক করবে। গোটা প্রক্রিয়াটি জুলাইয়ের মধ্যে শেষ করার কথা বলা হয়েছে। প্রায় সব বিভাগই হোম অ্যাসাইনমেন্টের পক্ষেই মত দিয়েছে। তবে এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে এগজামিনেশন বোর্ড। আগামী সপ্তাহে বোর্ডের বৈঠক রয়েছে। গত ফ্যাকাল্টি কাউন্সিলের বৈঠকে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক, শিক্ষা, লাইব্রেরি সায়েন্স এবং শারীরশিক্ষা বিভাগের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল অফলাইন অর্থাৎ ক্যাম্পাসে এসে খাতায় কলমে পরীক্ষার কথা। এদিনও মূল্যায়নের পদ্ধতি নিয়ে কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কিছুটা মতপার্থক্য হয় আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের। প্রসঙ্গত, কলা বিভাগের ছাত্র সংসদের পক্ষ থেকে পড়ুয়াদের যে মতামত নেওয়া হয়েছিল তাতে ৮৭ শতাংশ পড়ুয়াই হোম অ্যাসাইনমেন্টের পক্ষে মত দিয়েছেন।

জনপ্রিয়

Back To Top