আজকালের প্রতিবেদন- করোনা–পরিস্থিতিতে স্কুলের চেনা ছবিটা আর দেখতে পাওয়া যাবে না। স্কুল খুললেও এক সঙ্গে সব ক্লাসের পড়ুয়ারা আর স্কুলে আসবে না বলে জানালেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চ্যাটার্জি। ঘুরিয়ে–‌ফিরিয়ে এক–‌এক দিন এক–একটি ক্লাসের পড়ুয়ারা আসবে। উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা শেষের এক মাসের মধ্যে ফল প্রকাশের আশ্বাস দেন তিনি। মাধ্যমিকের ফলও যত দ্রুত সম্ভব প্রকাশের চেষ্টা করা হবে। আপাতত ৩০ জুন পর্যন্ত বন্ধ রাজ্যের সব স্কুল। তার পর স্কুল খোলার ব্যাপারে করোনা–‌পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।
বৃহস্পতিবার ২৪ ঘণ্টা নিউজ চ্যানেলের এক অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘‌আপাতত নবম ও একাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের পড়শোনার ওপরই বেশি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। নির্দিষ্ট পরিকল্পনা তৈরি করে নীচু ক্লাসের পড়ুয়াদের স্কুলে আনার কথা ভাবা হবে।’‌ স্কুল খোলার পর বিভিন্ন ছুটির সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে কীভাবে তাড়াতাড়ি সিলেবাস শেষ করা যায়, তার দিকে নজর দেওয়া হবে বলে জানান তিনি। উচ্চমাধ্যমিকের বাকি–‌থাকা তিন দিনের পরীক্ষা শেষ হচ্ছে ৬ জুলাই। তার এক মাসের মধ্যে ফল প্রকাশের চেষ্টা করা হবে। এ প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘‌মাধ্যমিকের ফল প্রকাশের পাশাপাশি উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা নেওয়া এবং এক মাসের মধ্যে ফল প্রকাশ করাই এখন মূল লক্ষ্য।’‌
ইউজিসি–র সুপারিশ অনুযায়ী স্নাতকের প্রথম বর্ষের ক্লাস সেপ্টেম্বর মাস থেকে শুরুর পরিকল্পনা নিয়েছে রাজ্য। ফলে উচ্চমাধ্যমিকের ফল প্রকাশ আগস্টে হলে ভর্তির জন্য এক মাস সময় পাওয়া যাবে। স্কুল খোলার পর কঠোর ভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ওপরও এদিন জোর দেন শিক্ষামন্ত্রী। বলেন, ‘‌স্কুল জীবাণুমুক্ত করার পাশাপাশি স্কুলের ভেতর জীবাণুনাশক যন্ত্র বসানো হবে। পড়ুয়াদের মাস্ক পরে আসা বাধ্যতামূলক।’‌

জনপ্রিয়

Back To Top