আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ সারা রাত ধরে টানা বৃষ্টি। তার জেরে বিপর্যস্ত মুম্বই। বিভিন্ন জায়গায় জল জমে বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। বাণিজ্যনগরীর জীবনরেখা লোকাল ট্রেনও বন্ধ। সমস্ত অফিস বন্ধ রাখা হয়েছে। খোলা শুধু জরুরি পরিষেবা। 
কলকাতাতেও প্রবল বৃষ্টি হবে বলে আগেই জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। সোমবার সন্ধে থেকে শুরু হয়েছে বৃষ্টি। উত্তর বঙ্গোপসাগরে নিম্মচাপ ঘনীভূত হয়েছে। সে কারণে কলকাতা এবং আশপাশের জেলায় আজও বৃষ্টি চলবে। নদিয়া, বীরভূম, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগণা, হাওড়া, হুগলিতে অতি ভারি বৃষ্টি হতে পারে। জল জমতে পারে কলকাতা এবং শহরতলিতে। 
বৃষ্টি থেকে রেহাই পাবে না উত্তরের পাঁচ জেলা। দার্জিলিং, কালিম্পং জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহারেও হবে ভারি বৃষ্টি। মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে বারণ করা হয়েছে। জারি হয়েছে হলুদ সতর্কতা। তৈরি রয়েছে কলকাতা পুরসভা। রাস্তায় যাতে জল না জমে না, সে কারণে পাম্পিং স্টেশনগুলোকে সচল রাখতে বলা হয়েছে।
উত্তরবঙ্গে বৃষ্টি হয়েছে। কিন্তু গত কয়েকদিন ধরে গরমে হাঁসফাঁস করছে কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গ। এই সময় এতটা গরম থাকে না। এনভিস্টেটস ইন্ডিয়া ২০২০ সালের একটি রিপোর্টে জানিয়েছে , ২০১৯ সালে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে মোট ১৫৭ দিন তাপপ্রবাহ হয়েছে। ২০১৮ সালের তুলনায় গত বছর এই সংখ্যাটা এক ধাক্কায় গড়ে ৮২.৬ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। গত এক দশকের মধ্যে ২০১০ সালে সব থেকে বেশি দিন দাবদাহের মুখে পড়তে হয়েছে ভারতকে। সেই সংখ্যাটা ২৫৪ দিন।

জনপ্রিয়

Back To Top