আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ কলকাতার গড়িয়াহাটে একাকী বৃদ্ধা খুন। ধড় থেকে মাথা আলাদা অবস্থায় পাওয়া গেল দেহ। 
গড়িয়াহাটের গড়চা লেনের বাসিন্দা উর্মিলা ঝুণ্ড, বয়স প্রায় ৬৫। বড় ছেলে মৃত। বাকি দুই ছেলে সম্প্রতি বিয়ের আমন্ত্রণ রক্ষা করতে কলকাতার বাইরে গিয়েছিলেন। বাড়িতে একা ছিলেন বৃদ্ধা। সম্ভবত সেই সময়েই, মানে বুধবার রাতেই এই ঘটনা ঘটে বলে পুলিশের ধারণা। সকালবেলা পুলিশ জানলা ভেঙে উদ্ধার করে বৃদ্ধার মৃতদেহ। পুলিশ জানায়, মৃতের হাতে ও গলায় সোনার গয়নাগুলি অক্ষত অবস্থায় পাওয়া গিয়েছে এবং খাটের পাশে ২০০ টাকার বাণ্ডিলও পড়ে থাকতে দেখা গিয়েছে। তদন্তকারী আধিকারিকরা প্রাথমিক তদন্তের পর মনে করছেন, হয়ত খুনের আসল উদ্দেশ্য লুট নয়। কিন্তু খুনি বা খুনিরা তদন্তের মোড় ঘুরিয়ে দেওয়ার জন্য এই পরিকল্পনা করে থাকতে পারে বলেও আশঙ্কা করছে পুলিশ। বৃদ্ধার দেহে ধারালো অস্ত্রের আঘাত ও সঙ্গে কোপানোর চিহ্ন দেখা গেছে। যে সময়ে দেহ উদ্ধার করা হয়, তখন দেহ থেকে আলাদা হয়ে রয়েছে মাথা। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি মোবাইল ফোন পেয়েছে। যেভাবে খুন করা হয়েছে তাতে অনেকেরই বক্তব্য, পুরনো কোনও রাগ থেকেই এইরকম নৃশংসভাবে খুন করা হয়েছে। তদন্তকারীরা আপাতত থ্রিডি স্ক্যানিং পদ্ধতিতে তদন্ত শুরু করেছেন। যুগ্ম কমিশনার মুরলিধর শর্মা জানান, ‘‌দু’‌জন ছেলেই বাইরে, তাঁদের সঙ্গে কথা বলে আমরা ঘটনার কারণ আমরা জানতে চেষ্টা করহ। এই খুনের কারণ লুঠও হতে পারে আবার পারিবারিক প্রতিহিংসাও হতে পারে। এখনই কিছু বলা সম্ভব নয়। তদন্ত চলবে।’‌ ‌

জনপ্রিয়

Back To Top