আজকাল ওয়েবডেস্ক: দেশজুড়ে বাড়ছে কোভিড সংক্রমণের হার। বাংলাতেও ক্রমশ বাড়ছে কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা। এহেন পরিস্থিতিতে চিকিৎসকদের একটাই পরামর্শ মাস্ক ব্যবহার করুন। স্যানিটাইজার সঙ্গে রাখুন। স্যানিটাইজার দিয়ে হাত ধুয়ে নিন। মারণ ভাইরাস করোনা ঠেকাতে বিশেষজ্ঞরা বারবার মাস্ক এবং স্যানিটাইজারের উপর জোর দিচ্ছেন। আর এই সুযোগেই কলকাতার বাজারে সক্রিয় হয়ে কালোবাজারির কারবারে যুক্ত অসাধু ব্যবসায়ীরা। কলকাতার বিভিন্ন বাজারে বিক্রি হচ্ছে জাল স্যানিটাইজার। বাজারে ভরে গেছে এইসব জাল স্যানিটাইজার। জাল স্যানিটাইজারের কারবার বন্ধে এবার কড়া ভূমিকা পালন করছে কলকাতা পুলিশ। জাল স্যানিটাইজারের কারবার ধরতে তৎপর হয়ে উঠেছে কলকাতা পুলিশের ইবির গোয়েন্দার। ক্যানিং স্ট্রিট, এজরা স্ট্রিটের বিভিন্ন দোকানে এবং গোডাউনে তল্লাশি চালিয়ে সেখান থেকে উদ্ধার করেছেন এই জাল স্যানিটাইজার। কলকাতা পুলিশের ইবির গোয়েন্দারা প্রথমে ক্রেতা পরিচয়ে দোকানগুলিতে যান স্যানিটাইজার কেনেন। আর সেই সমস্ত স্যানিটাইজার আসলে সবটাই জাল। এই ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১ জনকে আটক করেছে পুলিশ। পুলিশ সূত্রে খবর, কোথায় তৈরি করা হয় এইসব জাল স্যানিটাইজার সে বিষয়ে খোঁজ খবর শুরু করেছে কলকাতা পুলিশ। স্যানিটাইজারের নামে বিষাক্ত মিথাইল অ্যালকোহল ও এমন কিছু ক্ষতিকারক জিনিস স্যানিটাইজারে মিশিয়ে বিক্রি করা হচ্ছে যা ব্যবহার করলে মানুষের ত্বকের ক্ষতি হয়ে যাবে। ৩৮০ লিটার জাল স্যানিটাইজার উদ্ধার করে বাজেয়াপ্ত করেছে পুলিশ।

জনপ্রিয়

Back To Top