আজকালের প্রতিবেদন: কলকাতা পুরসভার স্বাস্থ্য দপ্তরের একটি দল খড়দায় যাবে এলাকা পরিদর্শনে। একই সঙ্গে কলকাতায় ডেঙ্গি–‌আক্রান্ত এলাকায় অভিযান চালিয়ে নজরদারি জারি রাখার নির্দেশ দিলেন কলকাতার মহানাগরিক ফিরহাদ হাকিম। শুক্রবার ডেঙ্গিতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় কলকাতা পুরসভার সোশ্যাল সেক্টর বিভাগের আধিকারিক ড.‌ শান্তনু মজুমদারের। পুর–‌আধিকারিকের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেন মেয়র। তিনি জানান, ডেঙ্গি, ম্যালেরিয়া এর আগেও হয়েছে। তবে এ ধরনের রোগ প্রতিরোধের ক্ষেত্রে পুরসভার পাশাপাশি নাগরিকদেরও সচেতনতা প্রয়োজন। 
খড়দা পশ্চিমপাড়ার বাসিন্দা ড.‌ শান্তনু মজুমদার ছিলেন কলকাতা পুরসভার সোশ্যাল সেক্টর বিভাগের আধিকারিক। গত সপ্তাহে শান্তনুবাবু ও তঁার বাবা ডেঙ্গিতে আক্রান্ত হয়ে কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন। শুক্রবার সকালে শান্তনুবাবু মারা যান। সদা–‌হাসিখুশি পুর–‌আধিকারিকের হঠাৎ মৃত্যুর খবরে শোকের ছায়া নেমে আসে তঁার অফিসে এবং পরিবারে। এদিন ডেঙ্গি প্রতিরোধে এসইউসিআই(‌সি)‌ জেলা কমিটির পক্ষ থেকে ডেপুটেশন দেওয়া হয়। পুরসভার শ্রমিক কর্মচারী সঙ্ঘের তরফেও এ নিয়ে চিঠি দেওয়া হয় মেয়রের দপ্তরে। 
অন্য দিকে, খড়দা পুরসভার পক্ষ থেকে আগে থেকেই ডেঙ্গি প্রতিরোধের জন্য নানা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। সচেতনতা শিবিরও চলছে বিভিন্ন পুর ওয়ার্ডে। পুরকর্মীরা বাড়ি–‌বাড়ি গিয়ে ডেঙ্গির ব্যাপারে নানা পরামর্শ দিয়ে আসছেন।‌ কলকাতা, হাওড়ায় ও উত্তর ২৪ পরগনাতেও জ্বরের প্রকোপ বেড়েছে। বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে এ–পর্যন্ত ৬০ জন ডেঙ্গি–‌আক্রান্ত চিকিৎসাধীন। ইনস্টিটিউট অফ চাইল্ড হেল্‌থে ডেঙ্গি–‌আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছে কয়েকজন শিশু। ‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top