আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ শুরু হয়ে গিয়েছে ২১ জুলাইয়ের শহিদ সমাবেশ। রাজ্যের বিভিন্ন জেলা থেকে তৃণমূলের নেতা–কর্মীরা কলকাতামুখী হয়েছেন। হাওড়া, শিয়ালদহ–সহ বিভিন্ন জায়গা থেকে মিছিল এগোচ্ছে ধর্মতলার সমাবেশস্থলের দিকে। পা মিলিয়েছেন লক্ষ লক্ষ সাধারণ মানুষ। তৃণমূলের এই সমাবেশকে কেন্দ্র করে নিশ্ছিদ্র করা হয়েছে নিরাপত্তাকে। সিসি ক্যামেরা, ড্রোনের মধ্যে পাশাপাশি রাখা হয়েছে বম্ব স্কোয়াড, ডগ স্কোয়াড। কলেজ স্ট্রিট, বেন্টিঙ্ক স্ট্রিটে যান নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে।
এবার অন্যবারের তুলনায় উত্তরবঙ্গের মানুষের মধ্যে শহিদ দিবস নিয়ে উদ্দীপনা অনেক বেশি। এমনটাই মনে করেন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। উত্তরবঙ্গ থেকে এবার সমর্থকদের ভিড় কতটা হবে? সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে জ্যোতিপ্রিয় জানান, এবারও ভিড় হবে। মানুষের উদ্দীপনা রয়েছে। উত্তরবঙ্গে কিছু আসন হারানোর পর মানুষ আরও বেশি উজ্জীবিত হয়েছে। শনিবার দেখেছি, উত্তরবঙ্গে যেখান থেকে মানুষ আসত না সেখান থেকে মানুষ আসছে। রাজ্যে আমাদের যখন ৩৪টি আসন তখন উত্তরবঙ্গ থেকে এত লোককে আসতে দিখিনি। দলনেত্রী কী বার্তা দেন তা শোনার জন্যই তারা এসেছেন।
এদিকে রেলের বিরুদ্ধে অসহযোগিতার অভিযোগ তুললেন জ্যেতিপ্রিয় মল্লিক। তিনি বলেন, ‘‌শুনতে পাচ্ছি বহু ট্রেন বাতিল হয়েছে। বনগাঁ থেকে দু’‌জোড়া ট্রেন বাতিল হয়েছে। এখন বনগাঁ এবং গোবরডাঙ্গার ট্রেন বাতিল হয়েছে কিনা জানি না। অসম্ভব অসহযোগিতা শুরু করেছে রেল। তৃণমূল বলে রেল ঘর ভাড়া দেয়নি। কেন্দ্রে সরকারের সঙ্গে মিশে গিয়েছে বিজেপি। 

জনপ্রিয়

Back To Top