আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ দু’‌ঘণ্টা ধরে চলল জেরা। জিজ্ঞাসাবাদের পর ‘‌শান্তিনিকেতন’ থেকে বেরিয়ে গেল সিবিআই। ‌প্রসঙ্গত কয়লাকাণ্ডে গত রবিবার দুপুরে হঠাৎই অভিষেকের বাড়িতে নোটিস দিতে যান সিবিআই কর্তারা। তার পরিপ্রেক্ষিতে তিনি সিবিআই কর্তাদের গতকাল মেইল করে জানান, তিনি আজ জেরার মুখোমুখি হবেন। সেই কথা মত আজ সকাল ১১.৩৫ নাগাদ মঙ্গলবার হরিশ মুখার্জি রোডে ‘শান্তিনিকেতন’-এ পৌঁছন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা। সন্দেহজনক লেনদেন নিয়ে ১১ সদস্যের দল প্রশ্ন করেন রুজিরাকে। মঙ্গলবার টানা দু-ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদের প্রক্রিয়া চলে। সূত্রের খবর, দুই মহিলা আধিকারিকের সামনেই বয়ান নেওয়া হয়। পাশাপাশি সম্পূর্ণ জিজ্ঞাসাবাদ পর্বের ভিডিও রেকর্ডও করা হয়েছে। যদিও আজ রুজিরার সঙ্গে কী কথা হয়েছে তা এখনও জানা যায়নি। তাঁর বয়ানে সিবিআই সন্তুষ্ট নয় বলে সূত্রের খবর। বেশ কিছু প্রশ্ন এড়িয়ে গিয়েছেন বলে খবর।
সোমবার জেরা করা হয় রুজিরার বোন মেনকাকে। প্রশ্নোত্তর পর্বে সিবিআইয়ের কাছে সন্তোষজনক বয়ান দেননি রুজিরার বোন, দাবি কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার। সে ক্ষেত্রে দুই বোনের বয়ান খতিয়ে দেখা হবে বলে সূত্রের খবর। 
অন্যদিকে শনিবার সকালে আচমকা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়িতে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নবান্ন যাওয়ার পথে মিনিট দশেকের জন্য শান্তিনিকেতনে যান তিনি। মুখ্যমন্ত্রী বেরিয়ে যাওয়ার কিছুক্ষণ পরেই শান্তিনিকেতনে পৌঁছয় সিবিআইয়ের দল। 
যদিও এনিয়ে কটাক্ষ করেছেন বিজেপি নেতা অনুপম হাজরা। তিনি টুইটে লেখেন, ছোটবেলায় কবিগুরুর শান্তিনিকেতনের থেকে শুনেছি, কিন্তু বড় হয়ে অন্য এক শান্তিনিকেতন থেকে শুনতে পাচ্ছি ‘‌খেলা ভাঙার খেলা’। মুখ্যমন্ত্রী কি আবার ধর্নায় বসবেন‌?‌ এনিয়েও কটাক্ষের সুরে প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছেন তিনি। এনিয়ে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, রাজীব ব্যানার্জিকে নিরাপত্তা দিতে যেভাবে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী, ঠিক তেমনভাবেই অভিষেকের স্ত্রীকে বাঁচাতে ওঁর বাড়িতে গিয়েছেন তিনি। মনে হচ্ছে ‘‌ডাল মে কুছ কালা হ্যায়’‌।

জনপ্রিয়

Back To Top