আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ সন্ত্রাসবাদে মদত দেওয়ার অভিযোগে পাকিস্তানকে রীতিমতো তুলোধনা করল ইউরোপিয়ন ইউনিয়ন। ২০০৮ সালের পর দ্বিতীয়বার কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে আলোচনা হল ইউরোপিয়ন ইউনিয়নের পার্লামেন্টে। জম্মু–কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বাতিলের কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের পর ভারতের সঙ্গে সকল রাজনৈতিক, প্রশাসনিক সম্পর্ক ছিন্ন করেছে পাকিস্তানের ইমরান সরকার। শুধু তাই নয়, বিশ্বের মঞ্চে ভারতকে একঘরে করতেও বদ্ধপরিকর ইসলামাবাদ। কিন্তু রাষ্ট্রপুঞ্জের পর এবার ইউরোপিয়ন ইউনিয়নও কাশ্মীর ইস্যুতে ভারতের পাশেই দাঁড়াল। এদিন ইউরোপিয়ন ইউনিয়নের পার্লামেন্টে দাঁড়িয়ে পোল্যান্ডের নেতা ও ইউনিয়নের নেতা রিজার্ড কারনেকি বলেন, ‘ভারত বিশ্বের সবচেয়ে বড় গণতান্ত্রিক দেশ। ‌জম্মু–কাশ্মীরে দীর্ঘদিন ধরে যে সন্ত্রাসবাদী হামলা হয়ে চলেছে, আমাদের সেই বিষয়টি নিয়ে কথা বলা উচিত। জঙ্গিরা চাঁদ থেকে আসে না। জঙ্গিরা আসে পাশের দেশ থেকে। আমাদের সকলের উচিত ভারতকে সমর্থন করা।’ কারনেকির বক্তব্যে সুর মিলিয়ে ইতালির নেতা ফুলভিও মার্তুসিল্লো বলেন, ‘‌পাকিস্তান পরমাণু যুদ্ধের হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। পাকিস্তান এমন একটি জায়গা যেখানে জঙ্গি সংগঠনগুলো ইউরোপে সন্ত্রাসবাদী হামলার ছক করে। ‌ইউরোপিয়ন ইউনিয়নের বক্তব্য, দুই দেশের মধ্যে শান্তি চুক্তির মাধ্যমেই কাশ্মীর সমস্যার সমাধান সম্ভব।    ‌

জনপ্রিয়

Back To Top