আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ মার্কিন অভিযানেই প্রাণ গিয়েছিল বাবার। এবার ছেলে। ওসামা বিন লাদেনের ছেলে হামজা বিন লাদেনকে নিকেশ করতে সক্ষম হয়েছে মার্কিন সেনা। শনিবার একথা জানিয়ে দিলেন মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প। আফগানিস্তান-পাকিস্তান সীমান্তে সন্ত্রাস-বিরোধী অভিযানে তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে আমেরিকা। হোয়াইট হাউস থেকে জারি হওয়া একটি বিবৃতিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, ‘আফগানিস্তান ও পাকিস্তান সীমান্তে আমেরিকার সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানে মারা গিয়েছে ‌ওসামা বিন লাদেনের ছেলে এবং আল কায়দার উচ্চ–পর্যায়ের সদস্য হামজা বিন লাদেন। হামজা বিন লাদেনের মৃত্যুতে আল কায়েদা নেতৃত্বের অভাব বোধ করবে। জঙ্গি সংগঠনটির কার্যক্ষমতাও কমবে।’‌
আগস্টের শুরুর দিকে গোয়েন্দা আধিকারিকদের বক্তব্য তুলে ধরে মার্কিন সংবাদমাধ্যম জানায়, গত দুবছরের কোনও এক সময়ে আমেরিকার একটি সন্ত্রাস বিরোধী অভিযানে মৃত্যু হয়েছে লাদেনের ছেলের। যদিও প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সরকার খবরটি সরকারিভাবে নিশ্চিত করেনি। কিন্তু এবার একেবারে আনুষ্ঠানিকভাবে একথা জানিয়ে দিল হোয়াইট হাউস।  
বাবার মৃত্যুর পর আল কায়দা জঙ্গি সংগঠনের দায়িত্ব নিয়েছিল হামজা। ২০১১ সালে পাকিস্তানে মার্কিন বাহিনীর হাতে বাবার মৃত্যুর প্রতিশোধ নিতে জিহাদিদের আহ্বান জানিয়েছিল সে। সৌদি আরবেও বিদ্রোহের ডাক দিয়েছিল হামজা। তারপরই তার নাগরিকত্ব বাতিল করে সৌদি আরব। গত ফেব্রুয়ারি মাসে হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল, হামজার খোঁজ দিতে পারলে ১০ লক্ষ মার্কিন ডলার পুরস্কার দেবে আমেরিকা সরকার।

জনপ্রিয়

Back To Top