আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ চীনা ভাইরাস করোনা নিয়ে এবার আতঙ্কে ভারত সহ গোটা বিশ্ব। বুধবার এ নিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ‘‌হু’‌ বৈঠক করেছে সুইজারল্যান্ডের জেনিভায়। জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে সারা বিশ্বে স্বাস্থ্য বিষয়ক জরুরি অবস্থা জারি করা হবে কিনা। এবার এই পরিস্থিতি তৈরি হলে, বিশ্বে ষষ্ঠতম আন্তর্জাতিক জনস্বাস্থ্য বিষয়ক জরুরি অবস্থা জারি হবে।
রহস্যজনক এই ভাইরাসের প্রকোপ ভয়ে কাঁপছে চীন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা উদ্যোগ নিয়ে এর উৎস সম্পর্কে তদন্ত শুরু করেছে। জানা যাচ্ছে, এই ভাইরাস ধীরে ধীরে ভারতের দিকেও এর বিস্তার বাড়াচ্ছে। অর্থাৎ অন্যান্য দেশেও এর প্রকোপ ছড়াতে পারে। ‘‌হু’– এর কার্যকর্তা টেড্রস অ্যাঢানম ঘেব্রেইয়েসিস‌ জানালেন, ‘‌এখন পরিস্থিতি অত্যন্ত জটিল। মাদের সংস্থার একটি চীনা দল ওই দেশে কাজ করছে। তাঁরা চেষ্টা করছে যাতে এই ভাইরাসের বিস্তার পাওয়ার কারণ উদ্ধার করতে পারে।’‌ ‘‌হু’– এর জরুরি পরিষেবার অধিকর্তা মাইক রায়ান বললেন, চীনের সঙ্গে তাঁদের স্পষ্ট চুক্তি হয়েছে এই তদন্ত চালানোর। এছাড়া লন্ডনের ইম্পেরিয়াল কলেজের এমআরসি সেন্টার ফর গ্লোবাল ইনফেকশাস ডিজিজ অ্যানালাইসিস জানিয়েছে, এক মাসের মধ্যে এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৫৭১ আর মৃতের সংখ্যা কমপক্ষে ১৭। ভাইরাসটি আক্রমণ করছে ফুসফুসে। আপাতত যা বোঝা গিয়েছে, এই ভাইরাস প্রথম সংক্রমিত হয়েছিল চীনের ওয়াহান শহরের একটি পশু বাজার থেকে। এর থেকে ধারণা করা হচ্ছে এই ভাইরাস কেবল গবাদি পশুপাখি থেকেই সংক্রমিত হচ্ছে। সতর্কতা হিসেবে সেই বাজার আপাতত বন্ধ রাখা হয়েছে।
ভারতের নয়া দিল্লিতে ইতিমধ্যেই সতর্কতা জারি করা হয়ে গিয়েছে। মানুষকে সাবধান করা হচ্ছে যাতে তাঁরা সচেতন থাকেন এই রোগ সম্পর্কে। কলকাতা বিমানবন্দর ছাড়াও আরও ছ’‌টি দেশের বিমানবন্দরে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। চীনা যাত্রীদের স্বাস্থ্যপরীক্ষা করে তবেই শহরে স্বাগত জানানো হচ্ছে। 

 

 

‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top