আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ সময়ে মানুষকে খাবার বা তাঁদের অর্ডার করা পণ্য পৌঁছে দিয়ে আসেন ডেলিভারিবয় বা গার্লরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে। অথচ তাঁদের ক্ষুৎপিপাসার কথা সারা বিশ্বেই সেভাবে কেউ সাধারণত ভাবেন না। কিন্তু ভেবেছেন ক্যাথি ওউমা। আমেরিকার ডেলাওয়্যারের উইলমিংটন শহরের বাসিন্দা এই মহিলা তাঁর বাড়িতে অনলাইন শপিং–এর পণ্য পৌঁছে দিতে আসা ডেলিভারিবয়দের জন্য সদর দরজার বাইরে একটি ঝুড়িতে রেখে দিয়েছেন কিছু খাবারদাবারের প্যাকেট, ঠান্ডা পানীয় এবং পানীয়জলের বোতল। সঙ্গে একটি ছোট্ট চিরকূটও ঝুড়িতে রেখেছেন ক্যাথি। সেখানে বাড়িতে ডেলিভারির জন্য ধন্যবাদ জানিয়ে ডেলিভারিবয়দের উদ্দেশ্যে তিনি লিখেছেন, যাওয়ার আগে তাঁরা যেন কিছু খাবার, জল নিয়ে যান। স্থানীয় সময় দুপুরে রবিবার ক্যাথির বাড়িতে তাঁর অনলাইনে অর্ডার করা পণ্য পৌঁছে দিতে গিয়েছিলেন অ্যামাজনের ডেলিভারিবয় করিম আহমেদ–রিড। ডেলিভারির জিনিসটি রাখতে গিয়েই পাশে ঝুড়ি এবং তার ভিতরে থাকা চিরকূট চোখে পড়ে করিমের। উৎফুল্ল করিম খাবার এবং জলের বোতল হাতে নিয়ে আনন্দে নেচে ওঠেন। কারণ সময়াভাবে মধ্যাহ্নভোজ না করতে না পারায় এবং পরপর ডেলিভারি করতে করতে তৃষ্ণার্ত ছিলেন করিম। তাই ক্যাথির এই আতিথেয়তায় খুশি চেপে রাখতে পারেননি ডেলিভারিবয় করিম। ওই দিনই সোশ্যাল মিডিয়ায় এই কাজের জন্য ক্যাথিকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়ে করিম লিখেছেন, ক্যাথি মানুষের মধ্যে একজন সত্যি রত্ন। দরজার বাইরে থাকা সিসিটিভিতে করিমের সেই নাচের ভিডিও রেকর্ড হয়েছিল। ক্যাথিও সেই ভিডিও এবং খাবারদাবারের ঝুড়ির ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে সব অনলাইন শপিং কোম্পানির ডেলিভারিবয়দের উদ্দেশ্যে লিখেছেন যাঁরাই তাঁর বাড়িতে জিনিস পৌঁছে দিতে আসবেন, তাঁরাই যেন পথের জন্য কিছু খাবার নিয়ে যান। দুটি পোস্টই ভাইরাল হয়েছে। একদিকে সবাই যেমন এই কাজের ক্যাথিকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন। অন্যদিকে, ক্যাথিকে ধন্যবাদ জানানোয় করিমেরও প্রশংসা করেছেন।     

জনপ্রিয়

Back To Top