আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ যেভাবে স্বেচ্ছাসেবীদের টিকা প্রয়োগ করা হচ্ছে, তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করল মার্কিন ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (‌এফডিএ)‌। তাই আপাতত করোনার টিকার ট্রায়াল বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হল ইনোভিও ফার্মাসিউটিক্যালস সংস্থাকে। 
তাদের তৈরি করোনা টিকার প্রথম পর্যায়ের ট্রায়াল চলছিল সংস্থার। দ্বিতীয় এবং তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল শুরু উদ্যোগ নিচ্ছিল পেনসিলভেনিয়ার ওই সংস্থা। এফডিএ জানিয়ে দিল, করোনার টিকার প্রয়োগ নিয়ে কিছু প্রশ্নের জবাব দিতে হবে তাদের। তার পরই ফের ট্রায়াল শুরুর ছাড়পত্র দেওয়া হবে।
মানব শরীরে টিকা প্রয়োগের প্রযুক্তি নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছে এফডিএ। জানা গেছে, এতটি বৈদ্যুতিন যন্ত্রের সাহায্যে চামড়ার কূপগুলো খুলে টিকা প্রয়োগ করছে ওই সংস্থা। তাতেই বাদ সেধেছে এফডিএ। ২০১৬ সালে ক্যানসারের টিকার ট্রায়ালও একইভাবে চালিয়েছিল ইনোভিও। এ রকমই একটি যন্ত্রের সাহায্যে। 
টিকার প্রয়োগে মানবশরীরে কতটা প্রতিরোধ ক্ষমতা জন্মাচ্ছে, তা দেখার জন্য করোনা ভাইরাসের ডিএনএ ব্যবহার করছেন ইনোভিও–র গবেষকরা। এর আগে কোনও রোগ প্রতিরোধের জন্য ডিএনএ দিয়ে টিকা তৈরি হয়নি। সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, অক্টোবরের মধ্যে এফডিএ–র প্রশ্নের জবাব দেওয়া হবে। তার ৩০ দিনের মধ্যে টিকার ট্রায়াল শুরু নিয়ে সিদ্ধান্ত নেবে মার্কিন নিয়ামক সংস্থা।  

জনপ্রিয়

Back To Top