আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বিতর্কের মাঝে H–1B ভিসা নিয়ে সুর বদল ট্রাম্প প্রশাসনের। এবার মার্কিন সংস্থাগুলিতে কর্মরত ভিনদেশি নাগরিকদের জন্য ভিসা নিষেধাজ্ঞায় কিছু ছাড় ঘোষণা করেছে ওয়াশিংটন।
বুধবার মার্কিন বিদেশ দপ্তর জানিয়েছে, H–1B ভিসা বা L–1 ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞায় কিছু ছাড় ঘোষণা করা হয়েছে। ‘জাতীয় স্বার্থের’ কথা মাথায় রেখে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, যে সমস্ত ভিনদেশি নাগরিকরা ইতিমধ্যেই কোনও মার্কিন সংস্থায় কর্মরত রয়েছেন তাঁদের H–1B বা ওয়ার্কিং ভিসা দেওয়া হবে। তবে এক্ষেত্রে শর্ত হল, যে সংস্থায় তিনি কর্মরত রয়েছেন, সেখানে পূর্বের পদেই তাঁকে কাজে যোগ দিতে হবে। এর অন্যথা হলে মিলবে না আমেরিকায় কাজের অনুমতি। উল্লেখ্য, কম মাইনে ও আর্থিক লাভের কথা মাথায় রেখে চীন ও ভারত থেকে হাজার হাজার কর্মী নিয়োগ করে মার্কিন সংস্থাগুলি। করোনা আবহে এমন বহু কর্মীই দেশে ফিরে আসেন। কিন্তু গত জুন মাসে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ভিসা বাতিলের নির্দেশের পর আর তাঁরা আমেরিকায় ফিরতে পারছেন না। এবার নয়া ছাড় ঘোষণা হওয়ায় আপাতত কিছুটা স্বস্তি পাবেন তাঁরা।
বিগত কয়েক সপ্তাহ ধরেই স্বাস্থ্যক্ষেত্রে H–1B ভিসা নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার আর্জি জানিয়েছন বহু মার্কিন আইনজীবী। করোনা আবহে আমেরিকার বিভিন্ন হাসপাতালে কর্মরত ভিনদেশি স্বাস্থ্যকর্মীরা ফিরতে না পারায় রীতিমতো সমস্যার মুখে পড়তে হচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে। সেই কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। প্রসঙ্গত আমেরিকাবাসীর বেকারত্ব দূর করার জন্য কয়েক মাস আগে সাময়িকভাবে H–1B সহ একাধিক ওয়ার্কিং ভিসা বাতিল করেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। 
মার্কিন ডিপার্টমেন্ট অফ স্টেট অ্যাডভাইসারি জানিয়েছে, শুধু ওই ব্যক্তিই নন, তাঁর স্ত্রী, স্বামী, সন্তানরাও আমেরিকায় ফিরতে পারবেন৷ টেকনিক্যাল স্পেশালিস্ট, সিনিয়র–লেভেল ম্যানেজার সহ অন্যান্য কর্মী, যাঁদের H–1B ভিসা রয়েছে এবং আমেরিকার অর্থনীতিকে চাঙ্গা করতে যাঁদের দরকার, তাঁরাও ফিরতে পারবেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে৷

 

 

 

জনপ্রিয়

Back To Top