আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ নিজেদের সংযত রাখুক ভারত–পাকিস্তান। কাশ্মীর ইস্যুতে উপমহাদেশীয় এলাকায় শান্তি বজায় রাখতে দুই প্রতিবেশী দেশকে এমনই পরামর্শ দিল উদ্বিগ্ন রাষ্ট্রপুঞ্জ। পাশাপাশি সিমলা চুক্তির কথাও মনে করিয়ে দিল। এই চুক্তিতে বলা হয়েছে, শান্তিপূর্ণ আলোচনার মাধ্যমে কাশ্মীর সমস্যা মেটাতে হবে দুই দেশকেই। এখানে তৃতীয় কোনও পক্ষ মধ্যস্থতা করবে না। 
এর আগে সোমবার জম্মু ও কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা রদ করে রাজ্যটিকে দু’‌টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল– জম্মু ও কাশ্মীর এবং লাদাখে বিভক্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নয়াদিল্লি। সেই সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতেই এই মতপ্রকাশ রাষ্ট্রপুঞ্জের। ভারতের ৩৭০ রদ করার ঘোষণার পরেই ভারতের পদক্ষেপকে ‘‌অনৈতিক ও বেআইনি’‌ আখ্যা দিয়ে পাকিস্তান রাষ্ট্র দ্বারস্থ হবে বলে জানিয়েছিল। এরপরই রাষ্ট্রপুঞ্জের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুইতারেসের মুখপাত্র স্টিফেন দুজারিক বলেন, ‘‌সেক্রেটারি জেনারেল জম্মু ও কাশ্মীরের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন এবং সর্বাধিক সংযমের জন্য দু’‌দেশকেই আবেদন করেছেন।’‌ দুজারিক স্পষ্টভাবে আরও বলেন যে, রাষ্ট্রপুঞ্জের মহাসচিব ভারত ও পাকিস্তানের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের বিষয়ে ১৯৭২ সালের সিমলা চুক্তির কথাও স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন। সিমলা চুক্তি অনুযায়ী, জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ে সমস্যা দু’‌দেশকেই শান্তিপূর্ণ আলোচনার মাধ্যমে মেটাতে হবে।’‌ পাশাপাশি গুইতারেসের মুখপাত্র আরও জানান, গোটা বিষয়টির উপর নজর রাখছে রাষ্ট্রপুঞ্জ।

জনপ্রিয়

Back To Top