আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ স্বামীর মারের চোটে নিজের রক্তাক্ত চোখের ছবি টুইটারে পোস্ট করে সাহায্য চাইলেন প্রবাসী এক ভারতীয় বধূ। জেসমিন সুলতান নামে ৩৩ বছরের ওই বধূ ছবিটি পোস্ট করেন গত ১২ তারিখ সংযুক্ত আরব আমিরশাহির শারজা থেকে। পোস্টটি দেখে বুধবারই পদক্ষেপ করে শারজা পুলিস। অভিযুক্ত স্বামী মহম্মদ খিজর উল্লাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে শারজা পুলিস জানতে পেরেছে, বেঙ্গালুরুর বাসিন্দা জেসমিনের সঙ্গে কর্মসূত্রে শারজানিবাসী খিজরের বিয়ে হয়েছিল সাত বছর আগে। তাঁদের একটি পাঁচ এবং একটি ১৭ মাসের ছেলে আছে। জেসমিনের অবিযোগ, দীর্ঘ দিন ধরেই তাঁকে শারীরিক এবং মানসিকভাবে নির্যাতন করে চলেছেন খিজর। এমনকি তাঁর পাসপোর্ট এবং গয়নাগাঁটিও কেড়ে নিয়েছেন। এব্যাপারে গত ফেব্রুয়ারিতেই পুলিসে খিজরের বিরুদ্ধে অভিযোগও জানিয়েছিলেন জেসমিন। সেই ঘটনার তদন্ত এখনও হয়নি। শারজা পুলিসের কাছে জেসমিন আবেদন করেছেন, যেহেতু এখন তিনি কপর্দকশূন্য তাই সন্তানদের প্রতিপালনের জন্য তাঁকে তাঁর নিজের শহরে ফেরার ব্যবস্থা করে দিতে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট বিভাগকে জানানো হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিস। 

জনপ্রিয়

Back To Top