আজকাল ওয়েবডেস্ক: ফের অস্বস্তি তৈরি হল ইমরান খানের সরকারের। আবার সেমসাইড গোল বিড়ম্বনা তৈরি করল গোটা পাকিস্তানের পক্ষে। কারণ‌ জামাত–উদ–দাওয়ার মতো জঙ্গি সংগঠনের ওপর কোটি কোটি টাকা খরচ করেছে ইমরান খানের সরকার। এমনই কথা জানালেন তাঁরই সরকারের অভ্যন্তরীণ মন্ত্রী অবসরপ্রাপ্ত ব্রিগেডিয়ার ইজাজ আহমেদ শাহ। একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘জামাত–উদ–দাওয়ার উপর আমরা কোটি কোটি টাকা খরচ করেছি। এইসব সংগঠনের সদস্যদের সঠিক পথ দেখিয়ে মূলস্রোতে ফিরিয়ে আনার জন্য এটা অত্যন্ত জরুরী ছিল।’ 
এই জামাত–উদ–দাওয়া জঙ্গি সংগঠনটি হাফিজ সইদের। জম্মু–কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বিলোপ করা নিয়ে তারা আন্তর্জাতিক জনমত গড়ে তুলতে পারেনি বলেও স্বীকার করেছেন এই পাক মন্ত্রী। উল্লেখ্য, জুলাই মাসে মার্কিন সফরে গিয়ে সন্ত্রাস নিয়ে একই ধরনের স্বীকারোক্তি শোনা গিয়েছিল খোদ পাক প্রধানমন্ত্রীর মুখে। তিনি বলেছিলেন, ‘আমাদের দেশে এখনও এমন ৩০ থেকে ৪০ হাজার জঙ্গি রয়েছে যারা প্রশিক্ষণ নিয়ে আফগানিস্তান কিংবা কাশ্মীরের নানা জায়গায় লড়াই করেছে। আগের যে সরকারগুলি পাকিস্তানে ছিল, তাদের কারও জঙ্গি দমনের রাজনৈতিক সদিচ্ছা ছিল না।’‌
এবার নয়া স্বীকারোক্তি ইমরানের মন্ত্রীর গলায়। আন্তর্জাতিক টাস্ক ফোর্সের রোষ থেকে বাঁচতেই এই কথা বলছেন পাকিস্তানের মন্ত্রীরা বলে মনে করা হচ্ছে। অক্টোবরে প্যারিসের বৈঠকে এই নিয়ে হেস্তনেস্ত হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। ইতিমধ্যেই পাকিস্তানকে ধূসর তালিকায় পাঠিয়েছে টাস্ক ফোর্স। কালো তালিকাভুক্ত হলে তাদের উপর নানাবিধ আর্থিক বিধিনিষেধ চেপে যাবে। সেক্ষেত্রে আর্থিক সঙ্কটে ভোগা পাকিস্তানের পক্ষে আন্তর্জাতিক ঋণ পাওয়া করা কার্যত অসম্ভব হয়ে পড়বে।‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top