আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ভারতকে আর একটা সুযোগ দেওয়ার পক্ষপাতী ইসলামাবাদ হাইকোর্ট। কুলভূষণের হয়ে আইনজীবী নিয়োগ করতে পারবে ভারতীয় দূতাবাস। জানিয়ে দিল পাক রাজধানী ইসলামাবাদের হাইকোর্ট। 
চরবৃত্তির অভিযোগ ভারতীয় নাগরিক কুলভূষণ যাদবকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছিল সেনা আদালত। দিন কয়েক আগেই ভারত অভিযোগ তুলেছিল, যাদবের প্রাপ্য আইনি সাহায্যের পথ বন্ধ করছে পাকিস্তান। তাঁর সঙ্গে দেখা করতে চেয়ে ভারতীয় দূতাবাসের ১২টি অনুরোধ ফিরিয়ে দিয়েছে। এমনকী আন্তর্জাতিক বিচারবিভাগীয় আদালতের রায়ও অমান্য করছে। তার পরেই সোমবার ভারতকে স্বস্তি দিয়ে এই রায় দিল ইসলামাবাদ হাইকোর্ট।
২০১৬ সালের মার্চে পাকিস্তানে আটক হন যাদব। অতীতে ভারতীয় নৌবাহিনীর অফিসার ছিলেন তিনি। পরে ইরানে ব্যবসা করতেন। তাঁর বিরুদ্ধে চরবৃত্তির অভিযোগ আনে পাকিস্তান। ২০১৭ সালে তাঁকে মৃত্যুদণ্ড দেয় পাকিস্তানের সেনা আদালত। তার পর থেকে মাত্র দু’‌বার ভারতীয় দূতাবাস কর্মীদের সঙ্গে দেখা করতে দেওয়া হয়েছে যাদবকে। প্রতিবারই সাক্ষাতের ভিডিও রেকর্ড করা হয়েছে। দ্বিতীয় বৈঠকে যাদবের সঙ্গে ছিলেন পাক অফিসাররা। ভারতীয় বিদেশমন্ত্রকের অভিযোগ, এভাবে যাদবকে তাঁর আইনি অধিকার থেকে বঞ্চিত করছে পাকিস্তান। 
দু’‌জন বিচারপতির বেঞ্চ আইনজীবী নিয়োগের আর্জি মেনে নিয়েছেন। বিচারপতি আথার মিনাল্লাহ্‌ সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘‌এখন মামলাটি হাইকোর্টে রয়েছে। ভারতকে কেন আর একটা সুযোগ দেওয়া হবে না!‌’‌ পরবর্তী শুনানি ৩ সেপ্টেম্বর।

জনপ্রিয়

Back To Top