আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ধারাবাহিক বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল কাবুল। এখনও পর্যন্ত সরকারিভাবে তিনজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেলেও বিস্ফোরণ ও রকেট হামলার একাধিক শব্দের কারণে এখনও ভয়ে কাঁটা হয়ে আছে আফগানিস্তানের কাবুল শহরের গ্রিন জোন এলাকা। এই ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ১১ জন। সোশ্যাল মিডিয়ায় একাধিক ছবি প্রকাশিত হয়েছে, যেখানে দেখা যাচ্ছে, দু’টি বাড়িতে রকেট হামলার মতো গর্ত তৈরি হয়েছে। ঘন বসতিপূর্ণ এই এলাকায় রয়েছে দেশের ও বিদেশের একাধিক সংস্থার দপ্তরও। সেই কারণেই বিস্ফোরণের পর চিন্তা বেড়েছে প্রশাসনের। 
স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে এই নিয়ে কেউ মুখ খুলতে না চাইলেও আফগানিস্তানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘শনিবার  সকালে দু’টি পৃথক বিস্ফোরণের খবর পাওয়া গিয়েছে। ঘটনায় তিনজন পুলিশকর্মীর মৃত্যু হয়েছে বলে খবর মিলেছে। ১১ জন ঘটনায় আহত হয়েছেন।’ এটা ঘটনা, শেষ কয়েক মাসে কাবুলে হামলার সংখ্যা বেশ কিছুটা কমেছে। শনিবারের বিস্ফোরণের দায় এখনও কোনও গোষ্ঠী স্বীকার করেনি।
এদিকে এর মধ্যেই মার্কিন বিদেশ সচিব মাইক পম্পেও–র সঙ্গে তালিবানদের মধ্যস্থতাকারীদের আলোচনায় বসার কথা রয়েছে। সেই আলোচনায় থাকার কথা আফগান সরকারেরও। সেই সূত্রেই তালিবানরা জানিয়েছে, তারা আর শহরের জনবহুল এলাকায় হামলা চালাবে না। তা হলে কাবুলের এই হামলার পিছনে কাদের হাত রয়েছে– প্রশ্ন উঠেছে সব মহলেই। 

 


 

 


 

জনপ্রিয়

Back To Top