আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ কয়েক হাজার মাইল দূরে। কলকাতায় পুজোর আয়োজনের রূপ, রস, গন্ধ কিছুই হয়ত সেখানে পৌঁছয় না। তবু কথায় বলে না, যেখানে পাঁচটি বাঙালি পরিবার থাকে, সেখানেই একটা করে দুর্গাপুজো হয়। লন্ডন শহরও তেমন। তবে এখানকার পুজো দেখলে বোঝার উপায় নেই এ পরবাস। দুঃখ, বেদনা, আনন্দ, মা উমার আগমন ঘিরে সবটা যেন জড়িয়ে আছে এই কালাপানি পেরিয়ে যাওয়া দেশে।

সেই লন্ডনের এডিনবরার পুজো এবারে ষষ্ঠ বছরে পা দিল। আজ, মানে রবিবার লন্ডনে পাঁজি মতে নবমী। তাই কলকাতায় না হলেও, লন্ডনে লেগে গিয়েছে বিষাদের সুর। কারণ, মা এবার ফিরবেন কৈলাসে। আগেই বলেছি, এখানকার পুজো যেন ছোট্ট বাগবাজার। কারণ, এর সাবেকিয়ানার ভিত্তি। এখানে পুজো হয় পাঁজি পুঁথি মেনে, একেবারে নির্ঘণ্ট ধরে।

অষ্টমীর অঞ্জলি থেকে সন্ধিপুজো, দেবী বরণ, সিঁদুর খেলা, সব এক্কেবারে খাঁটি বাঙালি মতে। শাড়ি আর পাঞ্জাবি গায়ে চাপানো প্রবাসী বাঙালিদের দেখে মনেই হবে না এটা কলকাতা নয়। চারদিনের জন্য নিখাদ বাঙালি পাড়া হয়ে ওঠা এডিনবরার দুঃখ একটাই, কলকাতায় আরও একদিন থাকবেন মা। তার আগেই যে পঞ্জিকা মতে তাঁদের ওখানে মায়ের বিসর্জন।

জনপ্রিয়

Back To Top