আজকাল ওয়েবডেস্ক: সমীক্ষা বলছে করোনা আবহে বেড়ে গিয়েছে আত্মহত্যার হার। দীর্ঘদিন লকডাউনের কারণে বিশ্বের অর্থনীতি মুখ থুবড়ে পড়ায়, হতাশা বেড়েছে অনেকেরই। চাকরি খুইয়েছেন বহু মানুষ। আর দিন আনি দিন খাই মানুষের দুর্দশার তো কোনও শেষ ছিল না। গবেষণা বলছে, এর কারণে, এবং এতগুলো মাস ঘরবন্দি থাকায় অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েছেন অনেকেই। সঠিক সহায়তার অভাবে আত্মহত্যার দিকে মানুষ ঝুঁকেছেন তাই। 

ব্রিটেনের পর এবারে জাপানের প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিহিদে সুগা একাকীত্ব মন্ত্রকের কথা ঘোষণা করেন। দেশের প্রথম একাকীত্ব মন্ত্রী হন তেতসুশি সাকামোতো। বলাই বাহুল্য, জাপানের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন দেশবিদেশের মানুষ। আধুনিক যুগে পাল্লা দিয়ে ব্যস্ততা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মানুষের একাকীত্ব এবং অবসাদে ভোগার হার বাড়ছে বলেই জানাচ্ছেন মনোবিদরা। গবেষণা বলছে, ১১ বছরের মধ্যে করোনা আবহে আত্মহত্যার হার কয়েকগুণ বেড়েছে জাপানে। এপ্রসঙ্গে তেতসুশি সাকামোতো জানান, "অবসাদ, একাকীত্ব কাটাতে যতরকমের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া জরুরি, সেসবের ব্যবস্থা খুব শিগগিরই করব।" 

জনপ্রিয়

Back To Top