আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ দুর্নীতির দায়ে কারাবন্দী পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। লন্ডনে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন স্ত্রী বেগম কুলসুম। জেলে বসেই স্ত্রীর মৃত্যু সংবাদ পেলেন নওয়াজ। শেষবারের মত দেখতেও পারলেন না তাঁকে। লন্ডনের হার্লে স্ট্রিট ক্লিনিকে সোমবার রাতেই মারা যান কুলসুম। বয়স হয়েছিল ৬৮ বছর। ২০১৪ সাল থেকেই ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে এই ক্লিনিকে চিকিৎসা চলছিল তাঁর। সোমবার অবস্থার অবনতি হয়। ফুসফুসে সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় চিকিৎসায় আর সাড়া দিচ্ছিলেন না তিনি। রাতেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। 
নওয়াজ শরিফের ভাই পাকিস্তান মুসলিম লিগ নওয়াজের প্রেসিডেন্ট শাহবাজ শরিফ উর্দুদে টুইট করে কুলসুমের মৃত্যু সংবাদ সুনিশ্চিত করেন। 
রাওলপিণ্ডির আদিয়ালা জেলে বন্দী রয়েছেন প্রাক্তন পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ, তাঁর মেয়ে মারিয়াম এবং জামাই ক্যাপ্টেন মহম্মদ সফদর। 
সূত্রের খবর কুলসুমের দেহ পাকিস্তানে নিয়ে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছে শরিফের পরিবার। এবং পাকিস্তানেই কবরস্থ করা হবে তাঁকে। কুলসুমের দেহ পাকিস্তানে নিয়ে আসার জন্য যাবতীয় সহযোগিতা করার আশ্বাস দিয়েছেন পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। বিবৃতি জারি করে এই আশ্বাস দিয়েছেন ইমরান। প্রাক্তন পাক প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রীর প্রয়াণে পরিবারকে সমবেদনা জানিয়েছেন সেদেশের সেনা প্রধান কামার জাভেদ বাজওয়া। 

জনপ্রিয়

Back To Top