সংবাদ সংস্থা, বেজিং, ১০ সেপ্টেম্বর- এখনই নয়। আরও একটা বছর পদে থাকবেন তিনি। ২০১৯ সালে আলিবাবার এগজিকিউটিভ চেয়ারম্যান পদে ইস্তফা দেবেন সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মা। নিজের ৫৪তম জন্মদিনে ঘোষণা করলেন চীনের এই ধনকুবের। উত্তরসূরি হিসেবে সংস্থার সিইও ড্যানিয়েল ঝাংকে মনোনীত করেছেন তিনি। তাঁর অবসর নিয়ে জল্পনা ছড়িয়েছিল। সোমবার জল্পনার অবসান ঘটান তিনি। সংস্থার কর্মীদের পাশাপাশি নিজের পদের উদ্দেশে জ্যাক মা একটি চিঠি লিখেছেন। চিঠিতে তিনি উল্লেখ করেছেন, এই পালাবদলের প্রভাব যাতে সংস্থার কাজকর্মে ব্যাঘাত না ঘটায় তা সুনিশ্চিত করাই তাঁর লক্ষ্য। নিজের হাতে ড্যানিয়েলকে যাবতীয় কাজকর্ম বুঝিয়ে দিতে চান। তাই আরও একটা বছর পদে থাকবেন। ২০২০ সালে সংস্থার অংশীদারদের বৈঠক না হওয়া অবধি তিনি আলিবাবার ডিরেক্টর পদে থাকছেন। ২০১৯ সালের ১০ সেপ্টেম্বর থেকে সংস্থার এগজিকিউটিভ চেয়ারম্যান পদে বসবেন ড্যানিয়েল। চিঠিতে তিনিও আরও লিখেছেন, ব্যক্তি নির্ভরশীলতা ছেড়ে বাণিজ্যিক প্রশাসনের দিকে এগোচ্ছে আলিবাবা। পালাবদল তার প্রতিফলন। ড্যানিয়েলের প্রশংসায় জ্যাক মা বলেন, ‘‌আলিবাবার ‘‌সিয়াওইয়াওজি’‌ কর্মী হিসেবে কাজে যোগদান করেন ড্যানিয়েল। নিজের যোগ্যতায় ২০১৫ সালে সংস্থার চিফ এগজিকিউটিভ পদে নিযুক্ত হন।’‌ সম্প্রতি জ্যাক মা–র সাক্ষাৎকার নিয়েছিল নিউ ইয়র্ক টাইমস। সেই সূত্রে খবর ছড়ায় ৫৪তম জন্মদিনে অবসরের ঘোষণা করবেন জ্যাক মা। সমাজসেবায় নজর দেবেন। চীনের বিভিন্ন ব্যবসার সঙ্গে তিনি জড়িয়ে। আচমকা তাঁর অবসরের খবরে চাঞ্চল্য ছড়ায় চীনেও। আলিবাবার মুখপাত্র জানান, জ্যাক মা এখনও সংস্থার এগজিকিউটিভ চেয়ারম্যান আছেন। উপযুক্ত সময়ে পালাবদলের খবর জানানো হবে। চীনের হাংঝাউ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজির অধ্যাপক ছিলেন। পরে অধ্যাপনা ছেড়ে ই–কমার্সের দিকে নজর দেন। গড়ে তোলেন আলিবাবা।

জ্যাক মা

জনপ্রিয়

Back To Top