আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ চন্দ্রযান–২–র অভিযান নিয়ে ইসরোর প্রশংসায় পঞ্চমুখ আমেরিকা সরকার এবং নাসা। স্থানীয় সময় রবিবার ভোররাতে আমেরিকার তরফে দক্ষিণ এবং মধ্য এশিয়ার কার্যকরী সহকারী সচিব তথা মার্কি কূটনীতিক অ্যালিস জি ওয়েলস্‌ বিবৃতি দিয়ে বলেছেন, ‘‌আমরা ইসরোকে অভিনন্দন জানাই চন্দ্রযান–২–র এই অসাধারণ অভিযানের জন্য। এই অভিযান আগামীর লক্ষ্যে ভারতের জন্য এক বিশাল পদক্ষেপ। বৈজ্ঞানিক তথ্য জোগারের কাজ করবে এই প্রক্রিয়া এবং বৈজ্ঞানিক কাজকর্ম এগিয়ে নিয়ে যেতে সাহায্য করবে। আমাদের কোনও সন্দেহ নেই, ভারত মহাকাশে তার উচ্চাকাঙ্খা ছুঁতে পারবেই।’ নাসার তরফেও টুইট করে ইসরো‌কে অভিনন্দন জানিয়ে লেখা হয়েছে, ‘‌মহাকাশ খুব কঠিন জায়গ। চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে চন্দ্রযান–২ নামানোর ইসরোর এই উদ্যোগ প্রশংসনীয়। তোমাদের এই অভিযান আমাদের উদ্বুদ্ধ করেছে। আমরা এখন তাকিয়ে আছি কবে একসঙ্গে আমাদের সৌরমন্ডলে যৌথ অভিযান চালাব।’
আন্তর্জাতিক মহাকাশ গবেষকরা ভারতের চন্দ্রযান–২ অভিযানের স্বতঃস্ফূর্ত প্রশংসা করে আশ্বাস দিয়েছেন, বিক্রম ল্যান্ডারের সব সংযোগ মোটেই ‌হারিয়ে যায়নি। শুধু আংশিক সংযোগ হারিয়েছে। যেহেতু অরবিটার এখনও চাঁদকে প্রদক্ষিণ করে যাচ্ছে তাই সেখান থেকেই সে সংকেতও পাঠিয়ে যাচ্ছে। তাই এতোটা হতাশ হওয়ার কিছু নেই। প্রাক্তন মার্কিন নভশ্চর এবং মহাকাশ গবেষক জেরি লিনেগারও বলেছেন, ভারত খুব কঠিন একটা কাজ করতে গিয়েছিল। দুর্ভাগ্যবশত শেষ মুহূর্তে গন্ডগোল হয়। তবে আগামী অভিযানগুলির জন্য এই অভিযান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, বলেছেন লিনেগার।
এদিকে বিক্রম ল্যান্ডার থেকে এখনও সংকেত পাওয়ার আশা করছে ইসরো। ইসরোর বিজ্ঞানীদের ধারণা, এখন না পাওয়া গেলেও কিছু সময় পরে হয়ত বিক্রম ল্যান্ডারের কাছ থেকে কোনও সংকেত মিলবে।
ছবি:‌ ইসরো টুইটার             

জনপ্রিয়

Back To Top