রাষ্ট্রপুঞ্জ, জেনিভা: বিশ্ব জুড়ে কোভিডে মৃতের সংখ্যা যেদিন ১০ লক্ষ ছাড়িয়ে গেল, তার আগের দিনই এল কিছুটা স্বস্তির খবর। এসে গেল কোভিড–‌১৯ পরীক্ষার নতুন পদ্ধতি। কয়েক ঘণ্টা বা কয়েক দিনের অপেক্ষা নয়। নতুন এই কোভিড টেস্টের ফল জানা যাবে মাত্র ১৫ মিনিট থেকে আধ ঘণ্টার মধ্যেই। খরচও কম, ৫ ডলার বা সাড়ে তিনশো টাকার সামান্য বেশি। নতুন এই পরীক্ষা–‌পদ্ধতি কোভিড নিয়ন্ত্রণে একটি বড়সড় মাইলফলক হবে বলে জানিয়েছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ডিরেক্টর জেনারেল টেড্রস অ্যাডানম গেব্রেসিয়াস। সবচেয়ে বড় কথা, ভারত এবং বিভিন্ন গরিব ও মাঝারি আয়ের দেশগুলিতে খুবই কাজে লাগবে কম দামের, দ্রুত রিপোর্ট মেলে এমন পরীক্ষা–‌পদ্ধতি। ওষুধ নির্মাতা সংস্থা অ্যাবট ও এসডি বায়োসেন্সর আগামী ৬ মাসে বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেট্‌স ফাউন্ডেশনের সঙ্গে হাত মিলিয়ে তৈরি করবে এই টেস্টের ১২ কোটি কিট।
কোভিড অতিমারী সবচেেয় বেশি সমস্যায় ফেলেছে দরিদ্র ও মাঝারি আয়ের দেশগুলিকে। এ–‌সব দেশের প্রত্যন্ত এলাকায় ল্যাব নেই। দেশে যথেষ্ট সংখ্যক প্রশিক্ষিত স্বাস্থ্যকর্মীও অমিল। ফলে পরীক্ষা ঠিকমতো না–‌হওয়ায় ধরা পড়ছে না কতজন সংক্রমিত। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভারত ও মেক্সিকো–‌সহ বেশ কিছু দেশে সংক্রমণ ছড়াচ্ছে বেশি, কিন্তু পরীক্ষা কম হওয়ায় রোগের আসল চেহারাটা আড়ালে থেকে যাচ্ছে। লাতিন আমেরিকার অনেক দেশে সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার খুব বেশি। অথচ সেখানও পরীক্ষার হার কম। গেব্রেসিয়াস জানিয়েছেন, এই সব সমস্যার চটজলদি সমাধান করে দেবে কম খরচের এই নতুন পরীক্ষা–‌পদ্ধতি। যে–‌সব এলাকা খুব বেশি সংক্রমিত, বিশেষত সেখানে অতিমারীকে চিহ্নিত করা সহজ হবে নতুন পরীক্ষায়। এই কিট সহজে বহন করা যায়, ব্যবহার করাও সহজ। বিশ্বের মোট ১৩৩টি দেশ এই কিট ব্যবহারের সুযোগ পাবে।

জনপ্রিয়

Back To Top