আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ আগামী ২১ সেপ্টেম্বর এক সপ্তাহের জন্য আমেরিকা সফরে যাওয়ার কথা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির। কিন্তু এদিকে প্রধানমন্ত্রীর আমেরিকা সফরকে ঘিরে নতুন করে বিতর্ক তৈরি করতে চাইছে পাকিস্তান। পাকিস্তানের আকাশসীমা দিয়ে উড়ে যেতে হবে নরেন্দ্র মোদিকে। তাই পাকিস্তানের আকাশসীমা যাতে ব্যবহার করতে দেওয়া হয়, তার জন্য পাকিস্তানকে অনুরোধ জানিয়েছিল ভারত। কিন্তু ভারতের অনুরোধকে কার্যত খারিজ করে দিল পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রক। পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেসি বুধবার জানিয়ে দেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিমানকে পাকিস্তানের আকাশসীমা দিয়ে উড়ে যাওয়ার ছাড়পত্র দেওয়া হবে না। কুরেসি জানান, জম্মু–কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বাতিলের কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানাতেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান। 
তারপরই বক্তব্য আসে ভারতের বিদেশমন্ত্রকের। জানানো হয়, ‌প্রধানমন্ত্রীর বিমান ওড়ার ক্ষেত্রে ছাড়পত্র না দেয়নি পাকিস্তান সরকার। এই সিদ্ধান্ত দুঃখজনক। অন্যান্য দেশের ক্ষেত্রে এই জাতীয় সিদ্ধান্ত রুটিন মাফিক অনুমোদন করে পাকিস্তান। বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র রবিশ কুমার বলেন, ‘‌আমরা পাকিস্তানকে এই ধরণের একতরফা ভিত্তিহীন পদক্ষেপ ত্যাগ করার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি।’‌
গত ২৮ আগস্ট থেকে ৩১ আগস্ট, করাচি আকাশসীমার তিনটি বিমানরুট বন্ধ করে দেয় পাকিস্তান। জানানো হয়, আকাশসীমায় ভারতের বিমান নিষিদ্ধ করার ভাবনাচিন্তা করছে পাকিস্তান। যদিও এক্ষেত্রে আর্থিক ক্ষতি হয়েছে পাকিস্তানেরই। আগের মাসে, আইসল্যান্ড যাওয়ার সময় রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের বিমান যাওয়ার অনুমতি দেয়নি পাকিস্তান। 

জনপ্রিয়

Back To Top