আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ রোহিঙ্গা উদ্বাস্তুদের মায়ানমারে স্থায়ীভাবে বসবাসের জন্য বাসস্থান নির্মাণের আশ্বাস দিয়েছে ভারত সরকার। মায়ানমারে ভারতের রাষ্ট্রদূত সৌরভ কুমার সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, ‘‌মায়ানমার সরকারের সঙ্গে আমাদের কথা হয়েছে। রোহিঙ্গা উদ্বাস্তুরা দেশে ফিরলে তাঁদের সেখানে স্থায়ীভাবে বসবাসের জন্য ২৫০টি বাড়ি ভারত সরকার নির্মাণ করবে।’‌ বিদেশমন্ত্রক সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছে,  প্রত্যেকটি বাড়ির মাপ হবে ৪০ বর্গমিটার। ভূমিকম্পের মত প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলা করতেও সক্ষম হবে বাড়িগুলি। সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, ২০১৭ সালে ভারত ও মায়ানমারের মধ্যে একটি চুক্তি সাক্ষর হয়। তারই ফলস্বরূপ এই প্রকল্প। 
রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর মায়ানমারের বৌদ্ধদের অত্যাচার এখনও দগদগে। মহিলা, শিশুদের খুন, ধর্ষণ– কিছুই বাদ রাখেনি মায়ানমারের বৌদ্ধরা। অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে তাঁরা মায়ানমার ছেড়ে ঢুকে পড়েছিল ভারতের উত্তর–পূর্ব অংশে এবং বাংলাদেশে। সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, যাচাইকরণের জন্য মায়ানমার সরকারকে ২০০০০–রও বেশি উদ্বাস্তুদের নাম পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু তাঁদের মধ্যে ১৩০০০ নাম নিশ্চিত করেছে মায়ানমার সরকার। রোহিঙ্গা উদ্বাস্তুদের নিরাপত্তার বিষয়ে আশ্বাস দেওয়ার জন্য বাংলাদেশে যেতে পারেন মায়ানমার সরকারের আধিকারিকরা। 

জনপ্রিয়

Back To Top